Link copied!
Sign in / Sign up
2
Shares

একজন বলিউড কিংবদন্তি: শ্রীদেবী কেমন ছিলেন মায়ের ভূমিকায়?

 

শ্রীদেবী সত্যিই বলিউড সিনেমার একজন আইকন ছিলেন। তিনি আমাদের সবার হৃদয়ে একটি স্থান স্থাপন করে ছিলেন এবং অনেকেরই তিনি প্রিয় ছিলেন। তার চলচ্চিত্র দেখে বড় হয়ে ওঠা এমন প্রত্যেকটি নারী তাঁকে রোল মডেল রূপে ভাবতেন। এটা কোন আশ্চর্যের বিষয় নয় যে যখন তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ছিল, সমগ্র জাতি খুব ধাক্কা খেয়েছিল

অনেক বলিউড সেলিব্রিটি এবং ক্রীড়া তারকাদের সমবেদনা প্রস্তাব তাদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে দেখা গেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন তাঁদের সমবেদনা জানিয়েছেন।

হরিশ আয়ার নাম একজন যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়া ব্যক্তি জনকে সত্যমেভ জায়াতে ধারাবাহিকে শ্রীদেবী অতিথি হিসেবে দেখা করতে গেছিলেন, তিনিও বেশ কয়েকটি টুইটের মাধ্যমে তাঁর আকস্মিক মৃত্যুর বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তার প্রথম প্রতিক্রিয়া ছিল, "উনিআমার জীবন বাঁচিয়েছিলেন কিন্তু ওনার জীবন হারিয়ে গেল"।

ওনার কর্মজীবনের দিকে ছোট করে ফায়ার তাকানো 

তিনি তামিল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন, যখন তিনি মাত্র ৪ বছর বয়সের। তাঁর চলচ্চিত্র কর্মজীবন শুরু করেছিলেন, থুনিভিয়ান (১৯৬৯)বলে একটি ধার্মিক ধারাবাহিকের ওপরে। তারপর থেকেই বিভিন্ন ভাষায় বিভিন্ন চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করেন। তাঁর টলিউডের আত্মপ্রকাশ "মা নান্না অর্ধশী" নাম একটি ছাতাছবী দিয়ে।

শিশু শ্রীদেবীর মালায়ালম চলচ্চিত্র, পুমপট্ট-এ তিনি সেরা শিশু শিল্পীর জন্য কেরালা স্টেট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড জিতেছিলেন।

তিনি বলিউডের প্রথম ছবি "জুলি" দিয়ে তাঁর হিন্দি ছবি শুরু করেন যেটি চক্রপাণি নাম একটি মালায়ালম ছায়াছবির ওপর তৈরী ছিল।

তিনি বলিউড সিনেমায় প্রবেশ করার পরেই তিনি সমালোচকদের প্রশংসিত সুরঙ্গের অভিনয় করতে শুরু করেন- চালবাজ- না জানে কাহন সে আইয়াইন হ্যায়, মিস্টার ইন্ডিয়ার হাওয়া হাওয়াই, রূপ কি রানী চোরও কে রাজা, আরো কত। চালবাজে প্রথম তিনি ডাবল রোল ভূমিকা পালন করেছিলেন। তিনি তার ভূমিকা এতটাই ভালোভাবে করেছিলেন যে সানি দেওয়েল ও রজনীকান্তকে ওনার পাশে ফিকে লেগে গেছিল।

পারিবারিক জীবন

 

কর্মজীবনের পাশাপাশি, শ্রীদেবী ছিলেন একজন মমতাময়ী মা। সন্তানদের জন্যে তিনি ছয় বছরের বিরতি  গ্রহণ করেছিলেন কর্ম জীবন থেকে। যখন তারা যথেষ্টবড় হয় তিনি ধীরে ধীরে পর্দায় ফিরে আসতে শুরু করেন। তিনি সত্যিই তার কাজের প্রতি নিবেদিত ছিলেন। তিনি প্রায়ই নিজেকে আলাদা আলাদা চরিত্রের মধ্যে পেতে পছন্দ করতেন। ওনার জন্যে শিশুরা ছিল প্রথম স্থানে, তারপর সবকিছু। তাঁর সদ্য প্রাপ্ত ছায়াছবি "মম" একথা অনেকটা প্রকাশ ও করেছে। শ্রীদেবীর সন্তানরাও মায়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।

শ্রীদেবী ও তার ছোট মেয়ে খুশি (বামদিকে) এবং বড় মেয়ে ঝানভি (ডানদিকে)।

আইএএনএস-এর এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছিলেন যে, তার কন্যারা বুদ্ধিমতি এবং তাই তাঁকে কঠোর হতে হয় না। ডিএনএ'র সাথে অন্য একটি সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছিলেন যে, তাঁর বড় মেয়ে ঝানভি (২০) ছোটো মেয়ে খুশি (১৭) খুবই দায়িত্বশীল এবং বড় মেয়ের তুলে ছোট মেয়ে বেশি অদূরে থাকতে ভালোবাসে।

শ্রীদেবী ও ছোট মেয়ে খুশি।

তিনি বলেন, "ঝানভি, আমি মনে করি ঠিক আমার মত বাধ্য। আমার সন্তানরা উভয়েই আমাদের সাথে অত্যন্ত সংযুক্ত এবং সবসময় আমার কাছ থেকে মনোযোগ খোঁজে এবং খুশি তার নিজস্ব কিছু জিনিস পরিচালনা করতে পারে। যদিও ঝিনভি এখন বড় হয়েছে, মাঝে মাঝে আমি এখনও তাকে খাইয়ে দিই। সে নির্দিষ্ট সময়ে সঠিকভাবে খায় না, তাই আমি নিশ্চিত যে সে সঠিকভাবে যাতে খায়। কখনও কখনও সে আমাকে ঘুম পাড়াতেও বায়না করে। খুশি সবসময় শৈশব থেকেই খুব স্বাধীন ব্যক্তি ছিল। "

শ্রীদেবী ও বড় মেয়ে জানভি।

তিনি কখনও চাননি তাঁর মেয়েদের স্পটলাইটে আনতে এবং এই নিয়ে তিনি খুব চিন্তিত থাকতেন। অবশেষে, তিনি বুঝতে পেরেছিলেন এটি থেকে দূরে রাখতে তাঁর মেয়েদের মোকাবেলা করতে শিখতে হবে। তাঁর নিজের ভাষায়, "যখন আমি বাইরে বেরিয়ে যাই তখন আমি চিন্তিত হয়ে থাকি, কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে, তারা তাদের সীমাগুলি জানে এবং তারা অত্যন্ত দায়িত্বশীল সন্তান। সুতরাং আমাকে  চিন্তা করতে হবে না। কিন্তু আমি উদ্বিগ্ন। 

মৃত্যুর সময়ও তিনি তাঁর পরিবারকে পাশে পেয়েছেন। এই মহান অভিনেত্রীর আত্মা শান্তি পাক, এই কামনা করি।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon