Link copied!
Sign in / Sign up
80
Shares

সয়াবিনের সুস্বাদে ৯টি বাঙালিয়ানা রেসিপি


নিরামিষ খেতে গেলে সয়াবিন একটা মুখ্য পদ, তবে সয়াবিন দিয়ে কি রাঁধা যায় এটা অনেকেই ভাবেন। এই রান্নাটা একটু স্পেশ্যাল হয়, ঘিসিপিটি সয়াবিনের ঝোল খেয়ে বোর হয়ে গেলে এটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। আর সয়াবিন যারা পছন্দ করেন তাদের জন্যতো কোনো কথা হবে না। আপনার সন্তান যদি ভালোভাসে সয়াবিন তবে ভিন্ন ধরনের সয়াবিনের এই রেসিপি ট্রাই করতে পারেন।

১. চিলি সয়াবিন

উপকরণ: সয়াবিন ১০০ গ্রাম, পেঁয়াজ ২টি, ক্যাপসিকাম ২টি, কাঁচা লঙ্কা ৪-৫টি, কর্নফ্লাওয়ার ৩ টেবিল চামচ, সয়া সস ৩ টেবিল চামচ, রসুন ৩-৪ কোয়া, টোম্যাটো ১টি, স্প্রিং অনিয়ন এক মুঠো, ভিনিগার ২ চা চামচ, টোম্যাটো সস ২ টেবিল চামচ, মৌরি গুঁড়ো ১ চা চামচ, নুন স্বাদ মতো, চিনি এক চিমটে, সাদা তেল ১ কাপ

প্রণালী:

একটি বাটিতে কর্নফ্লাওয়ার, জল, নুন, লঙ্কা গুঁড়ো, রসুন বাটা দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। গরম জলে সয়াবিন ভিজিয়ে রাখুন রাখুন আধ ঘণ্টা। এ বার হাত দিয়ে চিপে চিপে সয়াবিনের ভিতরকার অতিরিক্ত জল বের করে দিন। কড়াইয়ে তেল গরম করুন। সয়াবিন কর্নফ্লাওয়ারের গোলায় ডুবিয়ে তেলে লালচে করে ভেজে নিন। ওই তেলেই পেঁয়াজ কুচি, ক্যাপসিকাম কুচি, রসুন কুচি আর টোম্যাটো কুচি দিয়ে ভাজুন। সব্জি ভাজা হয়ে এলে সয়া সস, ভিনিগার আর টোম্যাটো সস দিয়ে দিনা। নেড়েচেড়ে একে একে চেরা কাঁচা লঙ্কা, লঙ্কা গুঁড়ো, মৌরি গুঁড়ো দিয়ে ভেজে রাখা সয়াবিন দিন। সয়াবিনের সঙ্গে গ্রেভি মিলেমিশে গেলে নুন আর চিনি দিয়ে দিন। তেল ছেড়ে বেরোতে শুরু করলে স্প্রিং অনিয়ন কুচি ছড়িয়ে নামিয়ে দিন। পরিবেশন করুন গরম গরম। পুরো রান্নাটাই কড়া আঁচে করবেন। গ্রেভি শুকনো করতে দু’টেবিল চামচ জলে আধ চামচ কর্নফ্লাওয়ার গুলে গ্রেভিতে দিন। ভিনিগারের সঙ্গে ইচ্ছে হলে সামান্য পাতিলেবুর রসও গ্রেভিতে দিতে পারেন।

২. সয়াবিনের তরকারি

উপকরন: সয়াবিন – ১ কাপ ( প্রয়োজন মতো ),, মাঝারি আলু – ২ টো, পেঁয়াজ কুচি – ২ টো,আদা – রসুন বাটা – ২ টেবিল চামচ, টম্যাটো কুচি – ১টা, লবঙ্গ – ২/৩ টা, গরম মশলা গুঁড়ো – ১/৩ চা চামচ ( প্রয়োজন মতো ), দারচিনি – ১/২ ইঞ্চি, ধনেপাতা কুচি, লঙ্কা গুঁড়ো – ৩/৪ চা চামচ, হলুদ , নুন – স্বাদমতো, তেল – ২ টেবিল চামচ

প্রণালী

প্রথমে ১টি পাত্রে সয়াবিন ধুয়ে গরম জলে ১০/১২ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এরপর সয়াবিন ফুলে উঠলে জল ঝরিয়ে রাখুন। তারপর আলুর খোসা ছাড়িয়ে ডুমো ডুমো করে কেটে ধুয়ে রাখুন। এরপর কড়াইতে তেল গরম করে আলূ ভেজে তুলে রাখুন। এরপর ওই তেলে লবঙ্গ ও দারচিনি ফোড়ন দিন আর পেঁয়াজ দিয়ে ভাজুন। তারপর আদা – রশুন বাটা দিয়ে কষাতে থাকুন। তারপর টম্যাটো কুচি মিশিয়ে দিন কষাতে থাকুন। টম্যাটো নরম হলে হলুদ, লঙ্কা গুঁড়ো মেশান। মশলা ভালো করে কষা হলে আলু আরে সয়াবিন দিয়ে একটু নেড়েচেড়ে নিন। এরপর দেড় কাপ জল দিন। স্বাদমতো নুন, চিনি দিয়ে দিন। এরপর ঢাকা দিয়ে কম আঁচে একটু রান্না করে নিন। হয়ে গেলে ওপর থেকে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে গরম গরম রুটি, ভাত বা পরোটার সাথে পরিবেশন করুন।

৩. সয়াবিন মোগলাই কারি

উপকরণ

সয়াবিনের বড়ি বা নাগেটস, পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা, টম্যাটো - পিউরি , শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো, কাশ্মিরী লঙ্কার গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, দুধ, ধনে পাতা - কুচি, নুন - স্বাদ অনুযায়ী, গোটা গরম মশলা - দুটো ছোট এলাচ, চারটে লবঙ্গ, আধ ইঞ্চি দারচিনি, তেজপাতা - দুটো, সর্ষের তেল - মাপ অনুযায়ী, ঘি - এক টেবল চামচ (ইচ্ছে হলে)

২৫০ গ্রাম সয়াবিনে, ৩ টে মাঝারি পেঁয়াজ, দেড় খানা মাঝারি টমেটো, আদাবাটা - দেড় চা চামচ, রসুন বাটা - দেড় চা চামচ, লঙ্কা গুঁড়ো - এক চা চামচ বা স্বাদ অনুযায়ী, হলুদ - দেড় চা চামচ. রান্না পুরোটাই দুধে হবে, সেই বুঝে দুধ নিন। ধনে পাতা কুচি ওপরে ছড়িয়ে দেবেন, সেই আন্দাজে।

প্রণালী

সয়াবিনের বড়ি গুলো জলে ফোটান। বড় , বড় রসগোল্লার মত হয়ে ফুলে উঠবে। জল থেকে তুলে রেখে দিন, নিজে থেকে যা জল ঝরবে ঝরুক, আলাদা করে জল চেপে বার করার দরকার নেই। গ্যাসে কড়া বসিয়ে, কড়া গরম হলে সর্ষের তেল ঢালুন। তেল গরম হলে, যদি ইচ্ছে হয় ঘি মেশান। ঘি পুরো গলে গিয়ে আর একটু গরম হবে। তেজপাতা আর গরম মশলা দিন। সেগুলো ভাজা হয়ে সুগন্ধ বেরোলে পেঁয়াজ বাটা দিন, ভালো করে কষে হাল্কা বাদামী রঙ ধরলে টম্যাটো পিউরি দিন। ভালো করে কষুন। এবার রসুন বাটা দিন, কষে নিয়ে আদা বাটা দিন। কিছুক্ষণ ভেজে সেদ্ধ করে রাখা সয়াবিনের বড়ি গুলো দিয়ে দিন। দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে, নুন, হলুদ আর লঙ্কার গুঁড়ো দিন। কাশ্মিরী লঙ্কার গুঁড়ো টাও দিয়ে দিন। সব এক সাথে কষুন। ভালো করে কষা হলে দুধ দিন। ফুটে উঠলে গ্যাস সিমে করে ঢাকা দিয়ে দিন। মিনিট দশেক রান্না হবে, মাঝে মাঝে ঢাকা তুলে নেড়ে দেবেন কারণ দুধ লেগে গেলে পোড়া গন্ধ বেরোবে, তখন আর খাওয়া যাবে না। যদি দেখেন ঝোল শুইয়ে যাচ্ছে অল্প গরম জল দেবেন। দশ মিনিট বাদে ঢাকা তুলে আঁচ বাড়িয়ে ট্গবগ করে ফুটিয়ে নিন। এই রান্নাটায় ঝোল থাকবে, তবে চেহারা দেখে বুঝতে পারবেন রান্নাটা হয়েছে কিনা। সব উপকরণ মিশে ঝোলটার একটা সুন্দর কন্সিস্টেন্সি তৈরী হবে। হয়ে গেলে গ্যাস বন্ধ করে, ওপর থেকে ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিন। ভাত বা রুটির সাথে পরিবেশন করুন।

৪. সুইট অ্যান্ড সাওয়ার সয়া

উপকরণ: সয়ানাগেট ২ কাপ, আদাবাটা ১ চা চামাচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, লঙ্কা গুড়ো ১ চা চামচ, আদাকুচি ১ চা চামচ, রসুন কুচি আধা চা চামচ, ভাঁজে খোলা পেঁয়াজ ১ কাপ, টম্যাটো সস পৌনে ১ কাপ, ওয়েস্টার সস ১ টেবিল চামচ, সয়াসস ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচালঙ্কা ফালি ৪/৫টি, নুন স্বাদমতো, তেল সিকি কাপ, চিনি আধা টেবিল চামচ (স্বাদমতো)।

প্রণালী: 

২ চা চামচ তেলে সয়ানাগেট ভেজে ফুটন্ত গরম জলে ১০ মিনিট ভিজিয়ে ছেঁকে ১০ মিনিট ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে রাখুন। এবার ভালো করে চিপে জল নিংড়ে নিন। এবার নাগেটগুলো আদা-রসুন বাটা ও লঙ্কা গুড়োদিয়ে ম্যারিনেড করে রাখুন ২০ মিনিট। কড়াইতে তেল দিন। গরম হলে আদা ও রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন। মশলার সুগন্ধ বের হলে ম্যারিনেড করা নাগেট ঢেলে দিন। ৫ মিনিট ভেজে সিকি কাপ জল দিয়ে ঢেকে দিন। ভাঁজে খোলা পেঁয়াজ দিন। টম্যাটো সস, সয়াসস, ওয়েস্টার সস চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে কড়াইতে ঢেলে দিন। নেড়েচেড়ে স্বাদ দেখে নুন দিন। ফালি করা কাঁচালঙ্কা দিন। থকথকে হয়ে এলে লেবুর রস দিয়ে নামিয়ে নিন।

৫. সয়ানাগেট কোপ্তা পোলাও

উপকরণ: কোপ্তার জন্য সয়ানাগেট ১ কাপ, হাড় ছাড়া মুরগির বুকের মাংস ১ কাপ, আদাবাটা ১ চা চামচ, গরম মশলা গুড়োআধা চা চামচ, নুন স্বাদমতো, গোললঙ্কা গুড়োআধা চা চামচ, কাঁচালঙ্কা কুচি ১ চা চামচ, পেঁয়াজ মিহি কুচি সিকি কাপ, কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ, ফেটানো ডিম ১ ডিসের অর্ধেক, তেল ভাজার জন্য।

পোলাওয়ের জন্য: পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ চা চামচ, গরম মশলা গুড়োআধা চা চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, লবঙ্গ, এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা ২/৩টি করে, গুড়োদুধ ১ টেবিল চামচ, চিনি ১ চা চামচ, নুন স্বাদমতো, গরম জল ১ লিটার, ঘি/তেল ৩ টেবিল চামচ, কাঁচালঙ্কা ৫টি।

প্রণালী:

১ চা চামচ তেলে নাগেট ভেজে ফুটন্ত গরম জলে ১০ মিনিট ভিজিয়ে ১০ মিনিট ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে চিপে জল নিংড়ে নিন। ভেজানো নাগেট ও মাংস ফুড প্রসেসরের সাহায্যে মিহি কিমা করে নিন। তেল ছাড়া সব উপকরণ এবং সয়া ও চিকেন কিমার মিশ্রণ একত্রে মেখে কোপ্তা বানিয়ে ভেজে নিন। এবার পোলাওয়ের চাল ধুয়ে ৩০ মি. ভিজিয়ে রেখে ১০ মিনিট জল ঝরিয়ে রাখুন। হাঁড়িতে ঘি/তেল দিয়ে গরম হলে পেঁয়াজ কুচি বাটা গরম মশলা ভেজে নিন। এবার চাল ও আদা রসুন বাটা দিয়ে ভাজুন। চাল ভাজা হলে গরম জল, নুন দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। জল ফুটে ওঠা পর্যন্ত চড়া আঁচে রাখুন। এবার দুধ, গুড়োগরম মশলা ও চিনি দিয়ে নেড়ে ঢেকে আঁচ কমিয়ে দিন। ১৫ মিনিট এভাবে রাখুন। পোলাওয়ের ভাঁজে ভাঁজে কোপ্তা ও কাঁচালঙ্কা মিলিয়ে ঢেকে দমে রাখুন ১০ মিনিট। সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

৬. সয়ানাগেট চিকেন কারি

উপকরণ: মুরগির মাংস ১ কেজি, সয়ানাগেট ১ কাপ, আদাবাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজবাটা আধা কাপ, পেঁয়াজকুচি ১ টেবিল চামচ, লঙ্কা গুড়ো১ চা চামচ (রুটি অনুযায়ী), ধনিয়া গুড়ো২ চা চামচ, হলুদ গুড়োআধা চা চামচ, জিরা গুড়ো১ চা চামচ, টম্যাটো পিউরি আধা কাপ, গরম মশলা গুড়ো১ চা চামচ, নুন স্বাদমতো, মিল্ক ক্রিম আধা কাপ, তেল সিকি কাপ।

প্রণালী:

১ চা চামচ তেলে সয়ানাগেট ৫ মিনিট ভেজে প্রথমে ফুটন্ত জলে ১০ মিনিট পরে ঠাণ্ডা জলে ১০ মিনিট ভিজিয়ে জল নিংড়ে নিন। মাংস পছন্দমতো টুকরা করে ধুয়ে জল ঝরিয়ে নিন। হাঁড়িতে তেল দিন গরম হলে পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজ ব্রাউন করে ভেজে আদা-রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা দিয়ে ভাজুন। এবার টম্যাটো পিউরি দিন। হলুদ, লঙ্কা, ধনিয়া, জিরা গুড়োদিয়ে কষিয়ে মাংস ও নাগেট দিয়ে কষান। নুন দিন। মাংস কষানো হলে আধা কাপ গরম জল দিয়ে ঢেকে দিন। মাংস সিদ্ধ হয়ে মাখামাখা হলে গরম মশলাগুড়ো ও মিল্ক ক্রিম দিয়ে ১০ মিনিট দমে রাখুন। গরম গরম পরিবেশন করুন ভাত, রুটি বা পোলাওয়ের সঙ্গে।

৭. সয়াবিনের লাড্ডু

উপকরণ: সয়াবিন পাম্প ২ কাপ, আলুসিদ্ধ ১ কাপ, গাজর মিহি কুচি আধা কাপ, চিনি ২ কাপ, ঘি পৌনে ১ কাপ, নারকেল বাটা ১ কাপ, কাঠবাদাম কুচি সিকি কাপ, মাওয়া ১ কাপ, নুন ১ চিমটি, এলাচ গুড়োসিকি চামচ, গুড়ো দুধ ১ কাপ।

প্রণালী: 

সয়াবিন দানা ১২ ঘণ্টা ভিজিয়ে সিদ্ধ করে মিহি করে বেটে নিন। আলুসিদ্ধ ও সয়াবিন বাটা একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। কড়াইতে ঘি দিয়ে গরম হলে আলু ও সয়াবিনের মিশ্রণ চিনি দিয়ে নারান। এ সময় নুন দিন। ঘন তাল বেঁধে এলে মিহিকুচি গাজর ও নারকেল বাটা, কাঠাবাদাম কুচি, গুঁড়াদুধ দিয়ে নেড়ে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে দিন। অনবরত নেড়ে নেড়ে যখন কড়াই থেকে আলগা হয়ে আসবে নামিয়ে নিন। কুসুম গরম থাকতে ইচ্ছেমতো শেপের লাড্ডু বানিয়ে মাওয়ায় গড়িয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

৮. সয়া নাগেট সবজি

উপকরণ: ফুলকপি টুকরা ১ কাপ, মিষ্টি কুমড়া ১ কাপ, গাজর টুকরা ১ কাপ, শিম ১ কাপ, সয়ানাগেট ১ কাপ, পেঁয়াজ পাতা/কালি আধা কাপ, আদা, জিরা, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুড়োআধা চা চামচ, কাঁচালঙ্কা ফালি ৪/৫টি, নুন স্বাদমতো, চিনি আধা টেবিল চামচ, মেথি আধা চা চামচ, সরিষা আধা চা চামচ, শুকনা লঙ্কা ২টি, সরিষার তেল ৪ টেবিল চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী: 

এক চা চামচ তেলে সয়ানাগেট ৫ মিনিট ভেজে প্রথমে ফুটন্ত জলে ১০ মিনিট পরে ঠাণ্ডা জলে ১০ মিনিট ভিজিয়ে জল নিংড়ে নিন। মিষ্টি কুমড়া একটু বড় টুকরা, পেঁয়াজ কলি ১ ইঞ্চি লম্বা টুকরা এবং বাকি সবজি একই রকম টুকরা করে ধুয়ে নিন। চিনি, মেথি, তেল, শুকনো লঙ্কা, মিষ্টি কুমড়া, পেঁয়াজ কলি ছাড়া অন্যান্য উপকরণ একসঙ্গে মেখে ১ কাপ জল দিয়ে সিদ্ধ করুন। সব সবজি আধাসিদ্ধ হলে মিষ্টি কুমড়া দিন। সিদ্ধ করে নামিয়ে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে মেথি, সরষে ও শুকনা লঙ্কা ফোড়ন দিয়ে সবজি ঢেলে দিন। পেঁয়াজ কলি ও চিনি দিয়ে নাড়ুন। কিছুক্ষণ জ্বাল দিন- মাখামাখা হলে ১ টেবিল চামচ ঘি দিয়ে নামিয়ে নিন।

৯. সয়া চিকেন জালি কাবাব

উপকরণ: সয়ানাগেট ২ কাপ, মুরগির বুকের মাংস আধা কাপ (হাড় ছাড়া), পাউরুটি স্লাইস ২টি, পোস্তাদানা বাটা ২ চা চামচ, লঙ্কা বাটা ১ চা চামচ, ধনিয়া বাটা আধা চা চামচ, ধনে পুদিনাপাতা কুচি সিকি কাপ, আদাবাটা ২ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি মিহি ২ টেবিল চামচ, কাঁচালঙ্কা কুচি ১ টেবিল চামচ, টম্যাটো সস ১ টেবিল চামচ, কাবাব মশলা ১ চা চামচ, গরম মশলাগুড়ো আধা চা চামচ, নুন স্বাদমতো, ডিম ২টা, ব্রেডক্রাস ১ কাপ, তেল ভাজার জন্য পরিমাণমতো।

প্রণালী: 

১ চা চামচ গরম তেলে সয়ানাগেট ৫ মিনিট ভেজে ১০ মিনিট ফুটন্ত গরম জলে ভিজিয়ে ১০ মিনিট ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে চিপে জল নিংড়ে নিন। মুরগির বুকের মাংস ও সয়ানাগেট ফুড প্রসেসরের সাহায্যে কিমা করে নিন। পাউরুটি জলে ভিজিয়ে নিংড়ে নিন। তেল, ডিম ও ব্রেডক্রাস ব্যতীত সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে রাখুন ২০-২৫ মিনিট। গোলাকার চ্যাপ্টা কাবাব বানিয়ে ব্রেডক্রাসে গড়িয়ে ডিমে ডুবিয়ে ভাজুন। ভাজার সময় কাবাবের ওপর ডিম ছড়িয়ে দিন। দুই পিঠ বাদামি করে ভেজে নামান। গরম গরম পরিবেশন করুন পোলাও, গরম ভাত, রুটি-পরোটা কিংবা নানরুটির সঙ্গে। সঙ্গে সালাদও রাখুন।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon