Link copied!
Sign in / Sign up
1
Shares

একটি সঠিক স্যানিটারি ন্যাপকিন ঠিক কি কি দেখে বাছবেন?


স্যানিটারি ন্যাপকিন বাছাইয়ের ক্ষেত্রে অনেকেই অনেক ভুলভ্রান্তি করে থাকেন। বিশেষ করে নানারকমের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে পাওয়া তথ্যে কোনটা ঠিক আর কোনটা ভুল সেগুলি সঠিকভাবে জানতে না পারার কারণে বার বার একই ভুল হয়ে থাকে। তাই আমাদের এই তথ্যে আপনাদের স্যানিটারি ন্যাপকিন বাছাই করার সঠিক তথ্য দেওয়া হল।

১. চেষ্টা করবেন অধিক শোষণ ক্ষমতা সম্পন্ন প্যাড ব্যবহার করতে। এউ পণ্য গুলোতে ব্যবহার করা হয় সিনথেটিক উপাদান এবং শোষণ ক্ষমতা বৃদ্ধি করার জন্য ব্যবহার করা হয় ডায়অক্সিন, রেয়নের মত ক্ষতিকর রাসায়নিক। যত বেশী শোষণ ক্ষমতা সম্পন্ন, এসব উপাদানের পরিমাণ ততই বেশী। আর এই সব উপাদান দায়ী ওভারিয়ান ক্যান্সার হতে শুরু করে সন্তান না হওয়া পর্যন্ত হরেক রকম ভয়াবহ স্বাস্থ্য সমস্যার জন্য।

২. কৃত্রিম সুগন্ধীউক্ত প্যাড দেখে আকৃষ্ট হয়ে কিনে ফেলবেন না। চটকদার বিজ্ঞাপনেও ভুলবেন না। এই উপাদানগুলো আপনার গোপন অঙ্গে কালো দাগ ও এলারজিক রিঅ্যাকশনের জন্য দায়ী।

৩. প্যাড ব্যবহারের ক্ষেত্রে অধিক শোষণ ক্ষমতার দিকে না গিয়ে নরম তুলো বা সুতি কাপড়ের তৈরি অরগানিক প্যাড কিনুন। এখন আমাদের দেশেও এগুলো কিনতে পাওয়া যায়। বিজ্ঞাপনে একটি পণ্যকে ভালো বললেই সেটা ভালো হয়ে যায় না।

৪. ব্লিডিং-এর পরিমাণ কম থাকলে এবং আপনি যখন বাড়িতে আছে, তখন চেষ্টা করুন প্যাড ছাড়াই থাকতে। ২৪ ঘণ্টা এক টানা প্যাড পরিধান থেকে গোপন অঙ্গে দুর্গন্ধ তো হবেই, সাথে ব্যাকটেরিয়াল ও ফাঙ্গাল ইনফেকশনও হবে।

আমাদের এই পোস্টটি আশা করি আপনাদের জন্যে অনেক সুবিধা এনে দেবে। তাই, সকলের সাথে এই তথ্যটি শেয়ার করবেন ও সকলের উপকার করবেন।

আমাদের এই পোস্টটি পড়ার জন্যে ধন্যবাদ। 

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon