Link copied!
Sign in / Sign up
16
Shares

ঠান্ডা লেগে শিশুর বুকে কফ জমা এক সাধারণ সমস্যা! ঠিক কি করা উচিত?

 


ঠান্ডা লেগে অনেক সময় শিশুর বুকের মধ্যে সর্দি বা কফ জমে যায়। সাধারণত অ্যালার্জি, ব্যাকটেরিয়া অথবা ছত্রাক দ্বারা আক্রান্ত হলে বুকে কফ বা সর্দি জমে থাকে। এর কারণে কাশি, গলা ব্যথা, এমনকি বুকে ব্যথাও হতে পারে। সময়মত এর চিকিৎসা করা না হলে এটি দ্বারা শ্বাসযন্ত্র আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার আগে ঘরোয়া কিছু উপায়ে এই সর্দি, কফ দূর করতে পারেন। আসুন জেনে নি তেমনি কিছু উপায়।

১. নুন জল

বুকের সর্দি, কফ দূর করতে সহজ এবং সস্তা উপায় হল নুন জল। নুন শ্বাসযন্ত্র থেকে কফ দূর করে দেয়। এক গ্লাস হালকা গরম জলর সাথে এক চা চামচ নুন মিশিয়ে নিন। এটি দিয়ে দিনে দুই তিনবার কুলকুচি করান শিশুকে।

২. হলুদ

হলুদে থাকা কারকুমিন উপাদান বুক থেকে কফ, শ্লেষ্মা দূর করে বুকে ব্যথা দ্রুত কমিয়ে দেয়। এর অ্যান্টি ইনফ্লামেনটরি উপাদান গলা ব্যথা, বুকে ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। এক গ্লাস কুসুম গরম জলতে এক চিমটি হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এটি দিয়ে প্রতিদিন কুলকুচি করান শিশুকে।

এছাড়া এক গ্লাস দুধে আধা চা চামচ হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে জ্বাল দিন। এর সাথে দুই চা চামচ মধু এবং এক চিমটি গোল মরিচের গুঁড়ো মেশান। এই দুধ দিনে দুই থেকে তিনবার পান করান।

৩. লেবু এবং মধু

লেবু জলে এক চামচ মধু মিশিয়ে পান করান। মধু শ্বাসযন্ত্রের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সাহায্য করে। এমনকি এটি বুক থেকে কফ দূর করে গলা পরিষ্কার করে থাকে।

৪. আদা

এক টেবিল চামচ আদা কুচি জলে মেশান। এবার এটি ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ৫ মিনিট ফোটান। সম্পূর্ণ ভাবে ফুটে আসলে এতে সামান্য মধু দিয়ে দিন। দিনে তিনবার এই পানীয়টি পান করান। এছাড়া এক চা চামচ আদা কুচি, গোল মরিচের গুঁড়ো, এবং লবঙ্গের গুঁড়ো দুধ অথবা মধুর সাথে মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি দিনে তিনবার পান করান। যদি সম্ভব হয় তবে শিশুকে অল্প আদা কুচি করে দিতে পারেন।

৫. পেঁয়াজ

সম পরিমাণের পেঁয়াজের রস, লেবুর রস, মধু এবং জল একসাথে মিশিয়ে গরম করুন। কিছুটা গরম হলে নামিয়ে ফেলুন। হালকা গরম এই জল দিনে তিন থেকে চারবার পান করুন। এছাড়া পেঁয়াজের ছোট টুকরো খেতে পারেন।

 

৬. অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার

এক কাপ হালকা গরম জলে দুই চা চামচ বিশুদ্ধ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিন। এর সাথে এক চা চামচ মধু মেশান। এইবার এই পানীয়টি দিনে দুই তিনবার পান করুন। এক দুই সপ্তাহ পান করান। দেখবেন বুকের কফ অনেক কমে গেছে।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon