Link copied!
Sign in / Sign up
0
Shares

শিশুদের ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার কারন


ইংল্যান্ডে ৬০০-র বেশি শিশু টাইপ ২ ডায়াবেটিসের জন্য চিকিৎসা নিচ্ছে, এবং এই সংখ্যা দিন দিন আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। আক্রান্তদের বেশিরভাগ দক্ষিণ এশীয় এবং আফ্রিকান বংশোদ্ভূত। কারণ, দারিদ্রের কারণে এসব পরিবারের মধ্যে বাচ্চাদের অস্বাস্থ্যকর খাবার দেয়ার প্রবণতা অপেক্ষাকৃত বেশি। এমনকী ৫-৯ বছরের বাচ্চাদের মধ্যেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যায় টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি।

শিশুদের মধ্যে এই রোগের প্রকোপে চিকিৎসক উদ্বিগ্ন, কারণ এতে তাদের ভবিষ্যতে হৃদরোগ এবং কিডনির রোগে ভোগার আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে। এছাড়া, অকালে দৃষ্টিহীনতার ঝুঁকিও রয়েছে।

যেসব শিশু এই ডায়াবেটিস রোগ হচ্ছে তাদের দুই-তৃতীয়াংশেরই শরীরের ওজন বেশি। দক্ষিণ এশীয় এবং আফ্রিকান বংশোদ্ভূত পরিবারের শিশুদের মধ্যে টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি।

আক্রান্ত থাকা মেয়েদের সংখ্যা ছেলেদের চেয়ে দ্বিগুণ। আক্রান্তদের অধিকাংশের বয়স ১৫ থেকে ১৯-এর মধ্যে। শিশুদের মধ্যে এই রোগের প্রকোপ বাড়ছে। ২০১৩-১৪ সালে আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে ছিল ৫০৭, গত বছর তা বেড়ে দাঁড়ায় ৬২১।

প্রাপ্তবয়স্কদের চেয়ে শিশুদের শরীরে টাইপ ২ ডায়াবেটিস বেশী ক্ষতি করে। তাই বাচ্চাদের ওজন নিয়ে সন্দেহ দেখা দিলে, ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। দ্রুত ওজন কমানোর জন্য বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেয়া জরুরি।

আর যদি ইতিমধ্যেই শিশু আক্রান্ত হয়েছে, শরীর চর্চা থেকে শুরু করে খাওয়া দেওয়ার ব্যাপারে কঠোর শৃঙ্খলা পালন করতে হবে। বাচ্চাদের খাবারে চিনি এবং চর্বির পরিমাণ কমাতে হবে।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon