Link copied!
Sign in / Sign up
13
Shares

কে বলে আপনার রান্নার স্বাদ হয়না! টিপস হাতের মুঠোয়


রান্না ঘর আমাদের কাছে অতি প্রিয় একটি জায়গা। খাবার সুস্বাদু, এবং সুন্দর করে তুলতে আমরা এখানে না না চেষ্টা চালিয়ে যাই। কিন্তু অনেক সময়ে আমাদের কিছু ভূল বা ভিন্ন কোনো কারণ খাবারের স্বাদ সম্পূর্ণ ভাবে পাল্টে যায়। এমন কিছু বিষয় আছে যা, না জানার কারণে খাবারের স্বাদের এতটাই পার্থক্য হয়। তাই আপনাদের জন্য রান্নার এমন কিছু টুকিটাকি যা খাবার তৈরির আগে আপনাদের জানা অতি প্রয়োজন।

১. কচু শাক খেয়ে গলা কুটকুট করছে? এর থেকে বাঁচতে পরের বার কচু শাক রান্নার সময় তাতে একটু তেঁতুল মিশিয়ে দিন।

২. কলা কিনে আনার দুই দিনের মধ্যেই তা কালো হয়ে যায়। এটা আটকাতে কলার বোঁটার দিকটা ভালো করে প্ল্যাস্টিক দিয়ে বেঁধে রাখুন।

৩. মাছের ঝোলে সুন্দর রং আনতে চাইলে ফুটন্ত তেলে আধ চামচ চিনি মিশিয়ে দিন। এতে সুন্দর লালচে রং আসবে।

৪. ফল কেটে রাখলে তা কিছুক্ষণের মধ্যে লাল হয়ে যায়‚ বিশেষত আপেল। এটা যাতে না হয় তার জন্য এক চামচ মধু আর দু চামচ জল ভালো করে মিশিয়ে নিন।এরপর ফলের ওপর এটা ভালো করে ছড়িয়ে দিন।

৫. ডিমের সাদা অংশ কুসুমের থেকে আলাদা করতে হলে ডিমের কুসুমের ওপর একটা খালি জলের বোতল নিয়ে হাল্কা চাপ দিন। কুসুম সহজেই বোতলে ঢুকে যাবে। এছাড়াও হাতে তলায় একটা বাটি রেখে আঙুল ফাঁক করে হাতে একটা ডিম ভাঙুন। বাটিতে সাদা অংশ পড়ে যাবে। আর হাতে কুসুম রয়ে যাবে।

৬. কোন কারণে ডিম ভেঙে গেলে তা এক চামচ ভিনিগার দিয়ে জলে সেদ্ধ করে নিন। দিব্যি গোটা ডিম পাবেন।

৭. রসুনের খোসা সহজে ছাড়াতে। ১ মিনিট রসুন মাইক্রোওয়েভ করে নিন। যাদের মাইক্রোওয়েভ নেই তারা ঠান্ডা জলে রসুনের কোয়া ভিজিয়ে রাখুন।

৮. আলু ভাজা মুচমুচে করতে আলু কেটে তা কিছুক্ষণ নুন জলে ভিজিয়ে রাখুন।

৯. কাঁচা আনারস পাকাতে আনারসের মুখটা মানে গাছের অংশটা কেটে উলটে রাখুন। দেখবেন সহজেই আনরস পেকে যাচ্ছে।

১০. দুধ যাতে উথলে না পড়ে যায় এটা আটকাতে দুধের বাটির ওপর আড়াআড়ি একটা কাঠের খুন্তি বা হাতা রেখে দিন।

১১. ক্রিস্টাল ক্লিয়ার বরফ চাইলে জল আগে ফুটিয়ে তার পর সেই জল দিয়ে বরফ জমতে দিন।

১২. পেঁয়াজ কাটতে গিয়ে চোখের জলে নাকের জলে অবস্থায় না পড়তে চাইলে পেঁয়াজ কাটার সময় মুখে একটা চিউয়িং গাম চেবান।

১৩. মোচা কাটতে গিয়ে হাত কালো হয়ে গেছে? ভালো করে হাতে নুন দিয়ে ঘষে হাত ধুয়ে নিন।

১৪. মিক্সারের ধার ফেরাতে শুধু নুন দিয়ে মিক্সার চালিয়ে নিন। আবার ধার ফিরে আসবে।

১৫. অনেক সময় মিক্সারে সর্ষে বাটলে তা তিতো হয়ে যায়। এটা যাতে না হয় তার জন্য সর্ষে বাটার সময় তাতে একটা আইস কিউব দিয়ে বাটুন।

১৬. হিং শক্ত হয়ে গেলে হিং এর পাত্রে একটা কাঁচা লঙ্কা রেখে দিন।

১৭. কম তেলে লুচি ভাজতে চাইলে ময়দার লেচি একটা এয়ারটাইট পাত্রে ভরে তা ফিজে রেখে দিন। এতে লুচি মুচমুচে হবে এবং একই সঙ্গে কম তেল লাগবে।

১৮. মাশরুম টাটকা রাখতে মাশরুম খবরের কাগজ দিয়ে ভালো করে মুড়িয়ে রাখুন।

১৯. রুটি নরম করতে আটা বা ময়দা মাখার সময় তাতে একটু টক দই বা গরম দুধ মিশিয়ে দিন।

২০. পাস্তা ঝরঝরে রাখতে পাস্তা সেদ্ধ করে সঙ্গে সঙ্গে ঠান্ডা জলে ডুবিয়ে জল ঝরিয়ে নিলেই ঝরঝরে পাস্তা পাবেন।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon