Link copied!
Sign in / Sign up
0
Shares

শিশুদের ওষুধ কি ভাবে ঠিক রাখবেন


নিশ্চই শিশুর জন্য মাসকাবারি ওষুধ কেনেন? বর্ষায় স্যাঁতসেঁতের কারণে ড্যাম্প ওষুধে? সেই ওষুধ খাওয়ানো তো কোনো ভাবেই সম্ভব নয় বরং ফেলে দিতে হচ্ছে। তবে কি ভাবে বাড়িতে ওষুধ ভাল রাখবেন? ওষুধ সংরক্ষণের জন্য মানতে হবে কয়েকটি নিয়ম। তাহলে বেশিদিন টাটকা রাখা যাবে ওষুধ।

শুধু আলো, জল, বাতাস নয়, শিশুর জীবনের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ ওষুধ। সর্দি, কাশি, জ্বর নিত্যসঙ্গী। তাই বাড়িতে হাতের কাছেই মজুত রাখতে হয় ওষুধ। কিন্তু দীর্ঘদিন বাড়িতে পড়ে থেকে ওষুধ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে, বিশেষ করে বর্ষাকালে। কিন্তু এই নষ্টর হাত থেকে বাঁচার উপায় কী? আসুন জেনেনি।

বেশি তাপ, বাতাস, আলো এবং ময়েশ্চার ওষুধকে নষ্ট করতে পারে। ঠান্ডা এবং শুকনো জায়গায় রাখতে হবে ওষুধ। ড্রেসার ড্রয়ার কিংবা কিচেন ক্যাবিনেটে রাখা যেতে পারে ওষুধ। তবে, আগুন, স্টোভ, সিঙ্ক এবং গরম কোনও সরঞ্জাম থেকে দূরে রাখতে হবে। স্টোরেজ বক্স বা তাকে রাখা যেতে পারে ওষুধ। না হলে এক্সপায়ারি ডেটের আগেই নষ্ট হয়ে যেতে পারে ওষুধ।

তাপ ও ময়েশ্চারের ফলে ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল সহজেই নষ্ট হয়ে যায়। গুঁড়ো হয়ে যেতে পারে ওষুধ। সেই ওষুধ খেলে পেটের সমস্যা হতে পারে। ওষুধের খাপ থেকে ওষুধ খুলে রাখবেন না।

ওষুধের বোতল থেকে তুলোর বল বের করে নিতে হবে। কারণ, এই তুলো থেকে ময়েশ্চার জন্ম নিতে পারে। প্লাস্টিকের ব্যাগে ওষুধ রাখবেন না। রাখলে ওষুধের প্রভাব কমে যেতে পারে। ইনসুলিন ও লিকুইড অ্যান্টিবায়োটিকের ক্ষেত্রে বেশি সাবধানতা নেওয়া উচিত। ঘরের স্বাভাবিক তাপমাত্রায় সাধারণত ৩০দিন পর্যন্ত ঠিক থাকে ইনসুলিন। একটি পাত্রে অনেক ওষুধ একসঙ্গে না রাখারই পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিত্সকরা। না হলে এক্সপায়ারি ডেটের আগেই বদলে যেতে পারে ওষুধের রং, গন্ধ। শিশু ও পোষ্যদের নাগাল থেকে দূরে রাখতেই হবে ওষুধ।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon