Link copied!
Sign in / Sign up
10
Shares

মহিলারা এসব পুরুষদের থেকে দূরে থাকুন


মহিলারা এসব পুরুষদের থেকে থাকুন

অনেকসময় মেয়েরা আবেগের বসে সঙ্গী নির্বাচন করতে গিয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। সঙ্গী নির্বাচনে ভুল হলে মেয়েদের কী কী চরম ক্ষতি হতে পারে তা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। যাতে সেই অভিজ্ঞতা না হয় তার জন্য চিনে রাখা দরকার কিছু লক্ষণ। এগুলি দেখলেই সেই ছেলেদের থেকে দূরে থাকা উচিত মেয়েদের।

১) সানস্ক্রিন মেখে যে ছেলে রোদে বের হন এবং সারাক্ষণ রূপচর্চা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন তিনি অত্যন্ত আত্মকেন্দ্রিক।

২) রেস্তোরাঁ বা কফি শপে গিয়ে যিনি বিল মেটানোর নাম করেন না, অপেক্ষা করেন যাতে চুপ করে থেকে অন্যের ঘাড় দিয়ে বিষয়টা উতরে দেওয়া যায় তিনি যে নির্লজ্জ তা বলাই বাহুল্য।

৩) অপরিচিত বা অল্প পরিচিত মেয়েদের সামনে যাঁরা অ্যাডাল্ট জোক বলেন তারিয়ে তারিয়ে। এমন ছেলেরা বিকৃতমস্তিষ্ক এবং এদের বেশিরভাগের মধ্যেই ধর্ষকামী মনোভাব থাকে।

৪) শহরের ব্যস্ত রাস্তায় যাঁরা প্রচণ্ড গতিতে গাড়ি চালিয়ে যান। এঁরা জীবনের ক্ষেত্রেও ততটাই দায়িত্বজ্ঞানহীন।

৫) পায়ের উপর পা তুলে অনেকে এমনভাবে বসেন যে জুতোটি প্রায় পাশের সিটে যিনি বসে আছেন তাঁর গায়ের কাছে থাকে। এমন ছেলেরা উদ্ধত তো বটেই, ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত ডমিনেটিং।

৬) হ্যান্ডশেক করার সময়ে যিনি হাতটি সোজা রাখেন তিনি একেবারেই বিশ্বাসযোগ্য নন এবং বন্ধুত্বপূর্ণও নন।

৭) আলাপ হয়েই যিনি মেয়েদের শরীর নিয়ে মন্তব্য করেন তেমন ছেলেদের কাছে মেয়েদের মন নয়, শরীরটাই প্রধান। তাঁরা যে সব সময় ‘সেক্সি’ বা ‘হট’ বলে মেয়েদের সম্বোধন করেন তা নয়, অনেকেই ভদ্র ভাষায় ফিগারের তারিফ করেন কিন্তু মনের ভিতরে অন্য ভাবনা চলে।

৮) চুম্বনের সময়ে যাঁরা চোখ খুলে রাখেন তাঁদের বেশিরভাগই ভালবেসে চুম্বন করেন না, শরীর পাওয়াটাই তাঁদের মুখ্য উদ্দেশ্য থাকে।

৯) শারীরিক মিলনের সময়ে যে সব ছেলেরা নিজেরা নিষ্ক্রিয় থাকেন তাঁদের ৯৯ শতাংশ শুধুমাত্র যৌন সুখ পেতে আগ্রহী, সম্পর্ক বা ভালবাসায় নয়।

১০) যাঁরা একটি সম্পর্কে ভাঙন ধরতে না ধরতেই অন্য মেয়েদের সঙ্গে ডেটিং করতে শুরু করে দেন এবং পুরনো প্রেমিকার বদনাম করেন। এঁরা সব বিষয়েই অন্যের খুঁত বের করেন এবং সব বিষয়েই অন্যের উপর দোষ দিয়ে থাকেন।

১১) যাঁদের সারাক্ষণ মেয়েদের নগ্ন ছবি দেখেন এবং বলেন যে তাঁরা শরীরের বিভঙ্গে আসলে শিল্পের সন্ধান করছেন।

১২) যাঁরা প্রথম ডেটে গিয়ে নিজের সম্পর্কে কথা বলতেই বেশি ব্যস্ত থাকেন তাঁরা একেবারেই আত্মম্ভরী। এঁদের সঙ্গে সম্পর্কে না যাওয়াই ভাল।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon