Link copied!
Sign in / Sign up
27
Shares

মোচা দিয়ে বানাতে চান ৬ রকম রেসিপি?


মোচা কলা গাছেরই অংশ অর্থাৎ কলা হওয়ার আগে গাছে যেই ফুল ধরে সেটিই হল মোচা। প্রকৃতপক্ষে আপনারা সকলেই জানেন যে কোলা গাছ এমন একটি গাছ যেটির প্রত্যেকটি অংশ বেশ গুরুত্বপূর্ণ কাজে লাগে। 

মোচা আয়রনসমৃদ্ধ একটি সবজি এবং এটি দেহে রক্ত বাড়ায়। রক্তের মূল উপাদান হিমোগ্লোবিন। এই হিমোগ্লোবিনকেই শক্তিশালী করে তোলে মোচা। মোচার ভেতরের আয়রন ত্বক, চুল ইত্যাদি ভালো রাখতে সাহায্য করে। এতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়োডিন ইত্যাদি রয়েছে। আয়োডিন গলগন্ড বা গয়টার রোগের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে। এর নানা উপকরণ দাঁত মজবুত রাখে। রক্তশূন্যতা দূর করে এই সবজি। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘এ`, যা রাতকানা রোগের বিরুদ্ধেও লড়াই করে। হাড়ের জটিলতা দূর করে ঈষৎ লাল রংয়ের  এই সবজি। মনোপোজ হওয়া নারীদের হাড় মজবুত রাখে মোচা। টাটকা মোচা শরীরের শক্তি বাড়িয়ে তোলে।

তাই আজ আমরা আপনাকে মোচার মত একটি উপকারী সবজির ৬ রকম রেসিপি দিলাম। 

১. মোচার ঘন্ট 

উপকরণ: মোচা ১টি, লঙ্কা বাটা ১/২ চামচ, আলু ৬টি, ধনে বাটা ১ চামচ, তেল ১/২ কাপ, নুন ১ চামচ, তেজপাতা ১টি, চিনি ১ চামচ, জিরা ১ চামচ, এলাচ ২টিহলুদ ১/২চামচ, দারচিনি ২ টি, ঘি ১ চামচ।

প্রণালী:

১। মোচার প্রত্যেকটা কুড়ির ভিতরের শক্ত কাঠি ও পাতলা পাপড়ি ফেলে দিন। বাকি অংশ মোটা কুচি করে হলুদ মিশানো জলে ভিজিয়ে রাখুন।

২। আলু চৌকো টুকরা করে ২ চামচ তেলে ভেজে নিন।

৩। বাকি তেলে তেজপাতা দিয়ে জিরার ফোড়ন দিন। তেলে মোচা, হলুদ, লঙ্কা, ধনে ও নুন দিয়ে কষিয়ে নিন। আলু ও সামান্য জল দিয়ে ঢেকে আলু সিদ্ধ হলে চিনি দিয়ে দিন। সামান্য ঘি ও গরম মসলা মিশিয়ে মোচার ঘন্ট নাড়িয়ে নামিয়ে দিন। এরপর এটি গরম গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।

২. মোচার কোপ্তা 

উপকরণ: মোচা একটি, আলু আগে থেকে মোটামুটি সেদ্ধ করে নেবেন (ডুমো ডুমো সাইজে কাটবেন), বেসন যেটুকু লাগবে, জল ঝরানো ছানা আন্দাজ মতো, টক দই ৫/৬ চামচ, জিরেগুঁড়ো ২ চামচ, আদাবাটা, শুকনো লঙ্কা বাটা/গুঁড়ো, কাঁচালঙ্কা চেরা আন্দাজ মতো, তেজপাতা ১ টি, ১চা চামচ মৌরি,, ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো ১চা চামচ, গরম মশলা অল্প, নুন,হলুদ,চিনি, গোটা জিরে অল্প, সরষে তেল, ঘি 1 চা চামচ.

প্রণালী

১. মোচা কেটে হলুদ দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন ঘন্টাখানেক

২.  প্রেসার কুকারে ২টি সিটি দিয়ে সেদ্ধ করুন

৩. জল ঝরিয়ে চটকে নিন

৪. একে একে বেসন, ছানা, ২ চামচ টকদই, নুন, চিনি, মৌরি, তেজপাতা, গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে ভাল করে মাখিয়ে নিন।

৫. কড়াই এ তেল দিন। খুব গরম হলে মোচার মিশ্রণ থেকে নিজের পছন্দ মতো আকারের কোপ্তা বানিয়ে অল্প অল্প ভেজে নিন।

৬. পুনরায় কড়াই এ প্রয়োজন মতো তেল দিন।খুব গরম হলে গোটা জিরে, একটি তেজপাতা, ২টি কাঁচালঙ্কা চেরা ও আদাবাটা দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। সেদ্ধ করে রাখা আলু দিন। জিরেগুঁড়ো ও লঙ্কাগুঁড়ো/বাটা ,চিনি,নুন,হলুদ দিন। ভাল করে নেড়ে নিয়ে ২ চামচ টকদই দিন।

৭. কষা হয়ে এলে প্রয়োজন মতো গরম জল দিয়ে ফুটতে দিন।

৮. অন্য একটি পাত্রে কোপ্তা গুলি সাজিয়ে নিন।

৯. গ্রেভি অর্থাৎ ঝোল একটু গাঢ় হয়ে এলে কোপ্তা গুলির ওপর ঢেলে দিন।

১০. ঘি ও গরম মশলা ছড়িয়ে দিয়ে ঢেকে দিন।

৩. মোচার চপ 

উপকরণ মোচা ১টি, আলু ২টি, শুকনো লঙ্কা জিরে, পিঁয়াজ, গরম মশলা, বিস্কুটের গুঁড়ো, বেসন, সরষের তেল, বাদাম, বিট নুন, চাট মশলা।

প্রণালী

১. জিরে, শুকনো লঙ্কা ভেজে গুঁড়ো করে রাখুন।

২. মোচা ছোটো ছোটো করে কুচিয়ে ভাপিয়ে নিন।

৩. আলু সেদ্ধ করে মেখে রাখুন।

৪. পিঁয়াজ বেটে নিন।

৫. বাটা মশলা কড়াতে তেল দিয়ে কষে নিন।

৬. মশলা কষা হয়ে গেলে তাতে মোচা দিয়ে আরো কিছুক্ষণ কষুন।

৭. আলু সেদ্ধ, গরম মশলা, নুন, চিনি দিয়ে মোচা ভালো করে কষে নিন।

৮. মিশ্রণে বাদাম কুচো মেশান

৯. এবার মিশ্রণটিকে চপের আকারে গড়ে রাখুন

১০. বেসনের গোলায় ডুবিয়ে, বিস্কুটের গুঁড়ো মাখিয়ে ছাঁকা তেলে ভেজে তুলুন।

১১. চা-এর সাথে গরম গরম বিট নুন, চাট মশলা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন ।

৪. মোচার পাতুরি 

উপকরণ: মোচা ১ টা, মাঝারি সাইজের, নারকেল কোরা (১ কাপ), ভেজানো ছোলার ডাল বাটা (আধ কাপ), সর্ষে বাটা (২ চামচ), নুন-চিনি (স্বাদ অনুযায়ী), কাঁচালঙ্কা কুচনো (৭-৮ টা), সর্ষের তেল (আধ কাপ), কলাপাতা।

প্রণালী: মোচা বেছে কুচিয়ে নিয়ে সেদ্ধ করে জল ঝরিয়ে নিন। কলাপাতা আঁচে হালকা সেঁকে রাখুন। এবার কলাপাতা বাদে সব উপকরণ এক জায়গায় মেখে কলাপাতার মধ্যে দিয়ে সুতো দিয়ে বেঁধে দিন। একটা ননস্টিক প্যানে অল্প তেল গরম করে কলাপাতাগুলো এপিঠ ওপিঠ ভাল করে ভেজে নিন। কলাপাতার রঙ কালো হলেই রান্না রেডি। গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

৫. মোচার কাটলেট 

উপকরণ: ১ টা বড় মোচা ছাড়ানো, ২ টি মাঝারি আলু, কাঁচালঙ্কা, সরষের তেল অল্প, রসুন বাটা ১ চামচ, নুন স্বাদমতো,চিনি ১ চা চামচ, বেসন ২ কাপ, ভাজা মশলা (জিরে, ধনে, গোলমরিচ, তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা, ছোট এলাচ ভেজে গুড়োঁ করা), কর্ণফ্লাওয়ার ৪ চামচ, বিস্কুটের গুড়োঁ, ভাজার জন্য সাদা তেল, টমেটো সস।

প্রণালী:

প্রথমে মোচা, আলু ও কাঁচালঙ্কা একসাথে সেদ্ধ করে ভাল করে চটকে নিন। এবার কড়ায়ে অল্প তেল দিয়ে তাতে রসুন বাটা ও মাখা মোচা দিয়ে একটু ভেজে নিন। মাখাটা ঠান্ডা হয়ে গেলে নুন, চিনি, ভাজা মশলা ও বেসন দিয়ে ভালো করে মেখে নিন। এবার একটা পাত্রে কর্ণফ্লাওয়ার গুলে ব্যাটার তৈরী করে নিন।আর একটি সমান পাত্রে বিস্কুটের গুড়োঁ ছড়িয়ে তাতে অল্প নুন মিশিয়ে নিন। ঐ মাখা মোচা থেকে ছোট ছোট লেচি কেটে কাটলেটের আকারে গড়ে নিন। এবার কর্ণফ্লাওয়ার গোলায় ডুবিয়ে বিস্কুটের গুড়োঁ মাখিয়ে নিন। পুনরায় একইভাবে করুন। এবার ফ্রিজে ১ ঘন্টা রেখে দিন। তারপর ছাঁকা তেলে ভেজে নিন। টমেটো সসের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

৬. মোচা চিংড়ি 

উপকরণ: বেছে কুচি করা বড় কলার মোচা ১টি, নুন স্বাদমতো, হলুদ গুঁড়া পছন্দমতো, ধোনে গুঁড়ো, ১.৫ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ চা চামচ, আদা কুচি ১/২ চা চামচ, কাঁচামরিচ ফালি ৪টি, তেজপাতা ২টি, নারিকেল বাটা ১/২ কাপ, তেল ২ টেবিল চামচ, চিংড়ি- ১/২ কাপ।

প্রণালি: জলে নুন হলুদ দিয়ে ফুটিয়ে কুচানো মোচা দিয়ে ৫ মিনিট সিদ্ধ করে জল সেঁকে উঠিয়ে নিন। তেলে তেজপাতা ফোঁড়ন দিন। পেঁয়াজ-রসুন-আদা কুচি দিয়ে হালকা লাল করে ভাজুন। চিংড়ি দিন। নেড়েচেড়ে ভাপানো মোচা, নারিকেল বাটা, কাঁচামরিচ, সব মসলা ও অল্প নুন দিন। অল্প জল যোগ করুন ও মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে নিন।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon