Link copied!
Sign in / Sign up
3
Shares

লিকার চায়ের গুনাগুন


বাড়ি, অফিস, পাড়ার আড্ডা। কথায় কথায় চা বাঙালির পরিচয়। কিন্তু চায়ে দুধ মেশালেই সব ফিনিশ। লিকার চায়ের প্রচুর গুণ। ভাল থাকে হার্ট। ক্যানসার প্রতিরোধ করে। ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা কমায়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।

১. লিকার চা রক্তনালির প্রসারণ ঘটায় যা উচ্চরক্তচাপ ও হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণের জন্য অত্যন্ত জরুরি। চায়ে থাকা ক্যাটেচিন রক্তনালির প্রসারণের জন্য দায়ী। দুধের মধ্যে থাকে ক্যাসেইন। এটি ক্যাটেচিনকে বাধা দেয়। ফলে চায়ে দুধ মেশালে চায়ের রক্তনালি প্রসারণের ক্ষমতা পুরোপুরি চলে যায়।

২. চায়ের প্রভাবে কোষ থেকে সাধারণের তুলনায় ১৫ গুণ বেশি ইনসুলিন বেরোয়। এটি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু চায়ে দুধ মেশালে এই ইনসুলিন নির্গমনের হার কমতে থাকে। যদি ৫০ গ্রাম দুধ মেশানো হয়ে থাকে, তাহলে ইনসুলিনের নির্গমন শতকরা ৯০ শতাংশ কমে যায়। ওজন নিয়ন্ত্রণেও লিকার চায়ের জুড়ি মেলা ভার। দুধ- চিনি ছাড়া লিকার চায়ে থাকে ২ ক্যালরি। ১ চামচ চিনি সহ লিকার চায়ে থাকে ১৬ ক্যালরি। ১ চামচ চিনি ও দুধসহ চায়ে থাকে ২৬ ক্যালরি।

৩. লিকার চায়ে সুস্থ থাকে হার্ট। ক্যানসার প্রতিরোধ করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। মুখের ক্যানসার প্রতিরোধ করে। ডিএনএ-র ক্ষতি আটকায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, লিকার চায়ে যা থাকে প্রচুর পরিমাণে। হাড় মজবুত করে। স্ট্রেস কমায় লিকার চা। হজমশক্তি বাড়ায়। এনার্জি বাড়াতেও সাহায্য করে লিকার চা। মস্তিষ্ক ও স্নায়ুকে উদ্দীপ্ত করে। কোলেস্টেরল কমায়। ত্বক থাকে মসৃণ। চুলের পুষ্টি জোগায় লিকার চা।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon