Link copied!
Sign in / Sign up
8
Shares

টাকা পয়সা নয়, গাড়ি-বাড়ি-সম্পত্তি নয়, ঠিক কোন কোন ধরণের রোমান্টিক ভঙ্গিগুলি একজন স্ত্রীকে তাঁর স্বামীর কাছে আরো টেনে আনে?


অধিকাংশ মেয়ের জন্যই রোমান্স হলো উপকথার মতো না ,অথবা ব্যায় বহুল বা বিলাসিতা করে ভ্রমণ করা না। এটি নির্ভর করে কিভাবে পুরুষ তার প্রতি ব্যবহার করছে ,কিভাবে সম্মানের সাথে তার খেয়াল রাখছে। কিছু কিছু কাজ কর্ম তারা করে যা আপনাকে তার ভালোবাসা বোঝাতে সাহায্য করে। সে নিজের সম্পর্কে কম চিন্তা করবেন এবং আপনার জীবনে ভদ্রলোক হইয়া যাবে।  

এখানে ১০টি জিনিস দেওয়া হলো যা মহিলারা সবসময় তার স্বামীর কাছে পেতে চায় :

 

১.অপ্রত্যাশিত চুম্বন

ভালোবাসা প্রকাশ করার সব থেকে হলো হটাৎ চুম্বন করা। এই চুম্বন শোয়ার আগে বাধত্যা মূলক করা উচিত। চুমু তার কপালে বা গালে করা হলে এ সে খুশি হইয়া যাবে।

২.শক্ত করে জড়িয়ে ধরা

যদি আপনি প্রকাশে তার ভালোবাসা শিকার করেন , সুরক্ষিত নিরাপদ অনুভব করতে চান তাহলে এটি করতে পারেন। উপরুন্ত এটি ইঙ্গিত করে যে স্বামী অন্য কাউকে যত্ন করে না ,এবং তার জন্য তার ভালোবাসা প্রকাশে ভয়ে নেই।

 

৩.সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন

সবজি কেনার ক্ষেত্রে ,শিশুর যত্ন নেয়ার ক্ষত্রে এবং বিছানা ঠিক করার ক্ষত্রে “আমি করে দিচ্ছি “কথা টি জাদুর মতো কাজ করে। আপনার সম্পর্কের মধ্যে কিছু পরিবর্তন আনার জন্য তাকে সাহায্য করুন।

৪.তার মতামতের ও কদর আছে

যদি আপনি কখনো মনে করেন যে বিভিন্ন চিন্তার মধ্যে আপনি আটকে আছেন তাহলে অবশ্যই তার পরামর্শ নিন। স্ত্রী হিসাবে সাি বিষয়ে তার মতামত নিন ,খুব সাধারণ ভাবে যেমন কি রঙের টাই পড়বেন এবং বড়ো কোনো জিনিস যেমন বাড়ি কিনবেন। ...সমস্ত বিষয় যা আপনি তার জন্য করছেন। সুতরাং সমস্ত কিছু করার আগে তাকে জিজ্ঞাসা করুন।

 

৫.যদি সে ঠান্ডা অনুভব করে তাহলে তাকে তোমার জ্যাকেটটি তাঁকে 

এটি খুব ভালো কারণ আপনি আপনার মহিলা কে শীতের সময় উষ্ণতা প্রদান করছেন। কিন্তু বেশির ভাগ ছেলে এ বিয়ের পর তা আর করে না। স্ত্রী ক উষ্ণতা দেযার জন্য অবসসই স্বামী জ্যাকেট নিয়ে যাবে বিশেষ করে শীতের সময়।

৬.যখন তিনি কথা বলবেন তখন শুনুন 

এটি তাকে বুঝতে সাহায্য করবে যে সে শুধু অর্থহীন কথা বলে যাচ্ছে তা নয় এবং আপনি তার কথা শুনছেন। ইটা অফিস এর কোনো হাসির কথা আপনার বন্ধুর সম্পর্কে কোনো হাসির কথা ও হতে পারে। যখন আপনার স্বামী সেই কথা গুলি মন দিয়া শুনবে এবং তিনিও হাসবেন তখন তা আপনাকে অনুপ্রাণিত করবে যে সে আপনাকে এখনো মনে রেখেছে।

 

৭.বিস্মিত করুন

সব মহিলারাই বিস্মিত হতে ভালোবাসে। এমনকি যদি সেটা সামান্য কিছুও হয়,যেমন ফুলের তোড়া ,সে সেটাই ভালোবাসবে। সরলতা ভালোবাসে কারণ তার মধ্যে এ ভালোবাসা থাকে।

৮.কাজের থেকে একদিন ছুটি নিন

তার প্রতি আপনার ভালোবাসা প্রকাশ করার জন্য হটাৎ একদিন ছুটি নিন এবং তার সাথে সময় কাটান। এটি দেখাবে যে আপনি আপনার সম্পর্কের প্রতি কত দৃঢ়তা বদ্ধ। এটি আপনাকে একসাথে রান্না করার ,সারাদিন বিছানায় গড়াগড়ি খাওয়ার এবং দূরে কোথাও যাত্রা করার সুযোগ করে দেবে।

 

৯.তার যত্ন নিন

স্বামী হলো এমন যার কাছে সমস্ত চাপ মুক্ত হওয়া যায় বা সে চাপের কারণ হয়। সুতরাং চাপ মুক্ত করার জায়গা তৈরী করাই ভালো।কারণ আপনার তাকে দরকার। আপনি তার স্বাস্থ্যের দিকে সচেতন হন ,এবং যখন সে অসুস্থ বোধ করবে অবশ্যই তার যত্ন নিন। একদা যখন সে ভালো অনুভব করবে তখন সে আপনার সাথে হাসি মজা করবে।

১০. সেই ৩ টি জাদুগরি শব্দ বলুন

হ্যা হ্যা হ্যা ,কোনো ব্যাপার না যে তার সাথে কি ঘটেছে ,আপনার ভালোবাসা তার সামনে প্রকাশ করুন দেখবেন সমস্ত অশান্তি শান্তি তে পরিবর্তন হইয়া যাবে। প্রচুর মজা করুন , দিন গুলি সব মহান এবং ভালো হইয়া উঠবে। সমস্ত ঝগড়ার শেষে অবসসই সঠিক ভাবে এটি করুন। 

 

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon