Link copied!
Sign in / Sign up
5
Shares

এমন ৫টি লক্ষন, যা দেখে বুঝবেন আপনার পরিবারে সদস্যরা টেনশনে ভুগছেন?

অনেক সময়ই, আপনি পরিবারের সদস্য দের কে অকারণে মানসিক উত্তেজনায় ভুগতে দেখেন কিন্তু কিছুতেই সেই মানসিক উত্তেজনার কারন বুঝে উঠতে পারেন না । আপনার তখন মনে হয় পরিবারের সবাই মানসিক দিক দিয়ে অত্যন্ত উত্তেজিত এবং যে কোন সময় তার প্রভাবে ঝামেলার সৃষ্টি হতে পারে । পরিবারের একজন সদস্য মানসিক উত্তেজনায় ভুগলে, তার প্রভাব পরিবারের বাকি সদস্য দের মধ্যেও দেখা যায় ।

এরকম পরিস্থিতিতে, আপনার মানসিক উত্তেজনার উৎস বা কারন টিকে খুঁজে বের করা প্রয়োজন, এবং কিভাবে এই সমস্যাটিকে সঠিক ভাবে সমাধান করবেন তার উপায় বের করা দরকার । পরিবারের একে অপরের সাথে কথা বলুন, এবং মানসিক উত্তেজনার কারন টি জানার চেষ্টা করুন । যদিও অনেক সময়, আমরা এটা লক্ষ্য করতেই ভুলে যাই যে আমাদের পরিবারের সদস্য রা মানসিক উত্তেজনায় ভুগছে কিনা, ফলে সেই সমস্যাটি সমাধানও করতে পারি না ।

এখানে এমন ৫টি লক্ষনের ব্যাপারে আলোচনা করা হল, যা দেখে আপনি বুঝবেন আপনার পরিবারের কোন সদস্য মানসিক উত্তেজনা বা টেনশনে ভুগছেন ।

ঘুমের সমস্যা

অতিরিক্ত পরিমাণে টেনশন বা মানসিক উত্তেজনার কারনে অনিদ্রা দেখা দিতে পারে । কোন ব্যক্তি মানসিক উত্তেজনায় আক্রান্ত হলে সবার প্রথমে তার ঘুমেরই ব্যাঘাত ঘটে । ব্যাপারটি এতোটাই ভয়ঙ্কর যে, যে কোন ব্যক্তিই এই ফাঁদে জড়িয়ে পড়তে পারে । যদি আপনি টেনশনে ভুগতে থাকেন, এবং যদি তার ফলে ভালো করে ঘুম না হয়, তবে তা থেকে আরও টেনশন বা মানসিক উত্তেজনা সৃষ্টি হবে । যদি আপনি কোন কারনে মানসিক উত্তেজনা বা টেনশন অনুভব করেন, তবে ঘুমনোর চেষ্টা করুন, ঘুম আপনার টেনশন কমাতে সাহায্য করবে ।

অত্যন্ত চড়া মেজাজ

যদি দেখেন, পরিবারে একে অপরের উপর অত্যন্ত পরিমাণে চিৎকার চেঁচামেচি করছেন তবে আপনার নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করা খুব প্রয়োজন । একটি মানুষ যত বেশি টেনশনে ভুগতে থাকে, তার সহ্য ক্ষমতা ততই কমতে থাকে । এমন অবস্থায়, গলার স্বর নিচু করে কথা বলুন, এবং আলচনার মাধ্যমে সমস্যাটি সমাধানের উপায় বের করার চেষ্টা করুন । মনোযোগ এবং ধ্যানের মাধ্যমে আপনার স্নায়ু কে শান্ত করার চেষ্টা করুন ।

পরিবারকে সময় না দেওয়া

প্রতিদিন অন্তত এক বেলা পরিবারে সবার সঙ্গে একসাথে খেতে বসুন । এতে একে অপরের সাথে ভালবাসার মধুর বন্ধন তৈরি হবে, শুধু তাই নয় একে অপরের সাথে সারাদিনের আনন্দগুলিও ভাগ করে নিতে পারবেন । এছারাও, এর ফলে আপনি আপনার পরিবারের সদস্যদের আরও ভালো ভাবে জানতে পারবেন । মনে রাখবেন, তাদের বক্তব্য শোনার সময় কোন বাধা সৃষ্টি করবেন না ফলে যখন আপনি কোন বক্তব্য পেশ করবেন, তারাও আপনার সাথে অনুরূপ ব্যাবহারই করবে ।

শিশুদের ব্যাবহারে পরিবর্তন

একটি পরিবারে কি চলছে তা শিশুদের দেখলেই সবচেয়ে ভালো বোঝা যায় । যদি আপনার সন্তান কিছুটা বয়সে বড়, এবং তারা যদি দিনের বেশিরভাগ অংশই তালাবন্ধ ঘরে কাটাতে ভালবাসে । কিংবা, আপনার ছোট্ট সন্তানটি যদি, আগের মতো আর বাইরে খেলতে যাওয়ার আগ্রহ না দেখায়, তাহলে বুঝতে হবে আপনার পরিবারের কোন সদস্য মানসিক উত্তেজনায় আক্রান্ত এবং কোন ভাবেই এই সমস্যাটিকে জায়গার অভাবের সমস্যার সাথে গুলিয়ে ফেলবেন না । প্রত্যেক শিশুকেই তাদের একটি নিজেস্ব স্পেস দেওয়া এবং তাদের কিছু কিছু আবদার মেনে নেওয়া দরকার ।

সামাজিক জীবন ও কর্মক্ষেত্রের মধ্যে ভারসাম্যহীনতা

যদি আপনি লক্ষ্য করেন, ঘরে এবং কর্মক্ষেত্রে আপনাকে অনেক সংঘর্ষের মুখোমুখি হতে হচ্ছে, তবে একটু বিশ্রাম নিতে পারেন এতে একটু তরতাজা অনুভব করতে পারবেন । টেনশন থেকে মুক্তি পেতে অফিসে ছুটি নিয়ে কয়েকদিনের জন্য কোথাও ঘুরে আসতে পারেন ।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon