Link copied!
Sign in / Sign up
7
Shares

গ্রীষ্মকালে আপনার শিশুর জল খাওয়া সামলাবেন কি করে?


আপনি কখনো আপনার সন্তানকে সানন্দে জলপান করতে দেখেছেন? সারাদিনে ঠিক কতটা জল খাওয়া উচিত একটি বাচ্চার? জল থেকে আপনার সন্তান কি লাভ করবে? --- এই সহজ প্রশ্নের উত্তর আমরা অনেকেই সঠিক জানি না। এখানে আছে এই সব প্রশ্নের উত্তর এবং আপনার সন্তানকে জল খাওয়ানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে নানা তথ্য।


মানুষের শরীরে জলের দরকার

জল আমাদের দৈনিক জীবন যাপনের একটি মুখ্য অংশ। মানব দেহ জলয়োজিত থাকতে হবে। শরীরে জলের দরকার হয় কারণ:

------ কোষকলা, শিরদাঁড়া এবং গাঁটের সুরক্ষর্থে, শরীরের সংবেদনশীল অংশে আদ্রতা বজায় রাখে এবং গাঁটের চারপাশে নরম গদির মত সুরক্ষা দেয়।

------ শরীর থেকে নানাবিধ অদরকারি পদার্থ ঘাম, মুত্র বা মল দ্বারা বের করে দেয়।

------ খাদ্য পদার্থ ভেঙ্গে এবং শরীরকে মিনারেল শোষণে সাহায্য করে খাবার তাড়াতাড়ি হজম করে দেয়।

------ প্রতি কোষ থেকে কোষে পরিপোষক বা পুষ্টির বাহক হিসেবে কাজ করে।

------ সঠিক ওজন রাখতে সাহায্য করে।

------ মনসংযোগ বাড়ায়।

------ দীর্ঘকাল স্থায়ী অসুখ হওয়ার সম্ভাবনা কমায়।

------ মূত্রাশয়ে সংক্রমণ বা কোষ্ঠকাঠিন্যর মত বহু সমস্যার মোকাবিলা করে।

কতটা জল একটি শিশুর খাওয়া উচিত

১ থেকে ৩ বছর বয়সী শিশুদের দিনে প্রায় ১.৩ লিটার জলের প্রয়োজন হয়। যে কোনো পানীয়, যেমন ডাবের জল, ফলের সরবত, সুপ ইত্যাদি এবং অন্তত ৩৫০ মি. লি. দুধের মধ্যে থাকা জলও এই ১.৩ লিটারের মধ্যেই ধরা হবে। জ্বর বা অন্যান্য অসুখে আপনার সন্তান বেশি তৃষ্ণার্ত বোধ করতে পারে। যে পানীয় সে পান করে, সেটি তার শরীরকে ঠান্ডা রাখে।

বেশি ছটফটে এবং দুরন্ত শিশুরা তাড়াতাড়ি ঘেমে যায় এবং শরীর থেকে জল শীঘ্র বিয়োজিত করে ফেলে। শিশুর শরীরে পানীয় এর অভাব জল খাইয়ে পূর্ণ করতে হবে, আপনি যখন ই জল খাবেন, শিশুকেও এক গ্লাস জল খেতে বলুন। প্রতি ঘণ্টায় এরকম করতে থাকুন।

শিশুকে বারেবারে জল খাওয়ার অভ্যেস করান, কারন যতক্ষণে সে তেষ্টা অনুভব করবে, ততক্ষণে তার শরীর জলশুন্য হয়ে যাবে, প্রায় ৩% জলশুণ্য। আপনার শিশু তৃষ্ণার্ত বা পরিশ্রান্ত না হলে হয়ত জল চাইবেও না।

যদিও জলের পরিবর্তে আপনি যেকোনো পানীয় দিতে পারেন শিশুদের, কিন্তু মিষ্টি বা বাতান্বিত সফ্ট ড্রিংক দেওয়াটা উচিত নয়। কেনা সরবত বা স্কোয়াস জাতীয় মিষ্টি পানীয় তে পুষ্টির মাপ খুব কম থাকে এবং ১৮০ মি. লি. র বেশি শিশুদের দেওয়া উচিত নয়। যে কোনো ২৪০ মিলি এয়ারেটেড পানীয় তে সম্পূর্ণ ১০০ ক্যালোরি এবং ক্যাফেইন আছে যা শিশুর স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। ক্যাফেইন শুধু আসক্তিই তৈরি করে না, বার বার প্রস্রাবের ফলে শরীর থেকে জলও কমিয়ে দেয়।

গ্রীষ্মকালে 

গ্রীষ্ম কালে কিংবা আদ্র আবহাওয়ায়, আপনার সন্তানের শরীরে অনেক টা জল কমে যায়। তখন ১.৩ লিটারের বেশি জল লাগতে পারে জলশুন্যতা কে পূর্ণ করতে। গরমকালে কতটা জল খেতে হবে, এটি আপনার শিশুর প্রাত্যাহিক কাজকর্মের ওপর নির্ভর করে। গ্রীষ্মে, আপনার শিশুকে কোনো শারীরিক শ্রম যুক্ত কাজ করার ৩০ মিনিট আগে এবং কাজের মধ্যে প্রত্যেক ২০ মিনিট অন্তর জল খাওয়ান।


কি করে শিশুকে জলয়োজিত রাখবেন?

সবসময় জলই নয়, বিভিন্ন ফল বা সবজি, যেমন তরমুজ, স্ট্রবেরি, ব্রকোলি, শসাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে জল, এবং এগুলোও খাওয়াতে পারেন আপনার শিশুকে।

----- শিশুকে তার নিজের পছন্দ মতো জলের গ্লাস বা বোতল নিতে দিন, এই ভাবে জল পান করাটাও তার কাছে মজাদার হয়ে উঠবে।

----- এমনি জল কে আরো রঙিন বা সুন্দর করে তুলুন বরফে জমানো ফলের টুকরো দিয়ে বা জলে ফলের রস মিশিয়ে।

------ ফলের রস বা ফল দিয়ে পপসিকল বানান, চিনি ছাড়া। এটিতে প্রচুর জল থাকবে।

------ হাতের কাছেই জল রাখুন, যাতে আপনার শিশু ইচ্ছা মত জল খেতে পারে।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon