Link copied!
Sign in / Sign up
6
Shares

গরমে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে গিয়ে এই ভুলগুলি করছেন না তো?


প্রখর গরম ও রোদ যে ত্বকের জন্যে কতটা ক্ষতিকর তা হয়তো আপনি জানেন আর তাই গরমকালে ত্বকের যত্নে যেই জিনিসটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয়, সেটি হল সানস্ক্রিন। রোদের মারাত্মক ক্ষতিকারক আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে রক্ষা করে এই সানস্ক্রিন। সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মির কারণে ত্বকে সানবার্ন, কালো দাগ পড়ে যায় যা দ্রুত বলিরেখা পড়ার জন্য দায়ী।  প্রত্যেকেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু সানস্ক্রিন ব্যবহারে কিছু ভুল হয়তো আপনি নিজের অজান্তে করে ফেলছেন যা ত্বকের ক্ষতির জন্যে দায়ী। জানুন কি কি ভুল:


১।  প্রথমে ট্রায়াল না করা 

সানস্ক্রিন কেনার সময় প্রথমেই অল্প পরিমাণে সানস্ক্রিন নিয়ে হাতে লাগিয়ে ট্রায়াল করে দেখে নিন যে কোনোরকম অ্যালারজিক প্রক্রিয়া হচ্ছে কিনা। যেসব সানস্ক্রিনে টাইটেনিয়াম ডিওক্সাইড এবং জিঙ্ক ওক্সাইড আছে তার থেকে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভবনা কম থাকে।

২।  পুরোনো সানস্ক্রিন ব্যবহার করা 

নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার না করার কারণে অনেকের ঘরে গত বছরের সানস্ক্রিন থেকে যায় যা এই বছরেও আপনি ব্যবহার করে থাকেন। সেটি খুব বড় ভুল। পুরোনো সানস্ক্রিন ব্যবহার করার আগেএক্সপায়ারি ডেট দেখে নেওয়া খুব জরুরি। এছাড়া সানস্ক্রিনের বোতলটি কোনো গরম স্থানে রাখবেন না কারণ তাপ সানস্ক্রিনের উপাদানগুলো নষ্ট করে দেয়। এটি ব্যবহারে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।


৩। সঠিক এসপিএফ নির্বাচন না করা 

সানস্ক্রিন কেনার আগে এসপিএফ নম্বর দেখা খুব জরুরী। এই সংখ্যা দিয়ে বোঝা যাবে কতক্ষণ সানস্ক্রিন ইউভি রশ্মি থেকে রক্ষা করতে পারবে। সান প্রোটেকশন ফ্যাক্টর বিভিন্ন নম্বরে আসে যেমন এসপিএফ ১৫, এসপিএফ ৩০, এসপিএফ ৪৫ এবং এসপিএফ ৬০। তবে মনে রাখতে হবে কোন সানস্ক্রিনই ১০০% সানব্লক করতে পারে না। তবে যারা অনেক্ষণ বাইরে থাকেন তারা বেশি এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

৪। সারা বছর সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা

সারা বছর সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। শুধু গরমকাল নয়, বর্ষাকাল, এমনকি শীতকালেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। সানস্ক্রিনের প্রধান কাজ হল সূর্যের ইউভি রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করা। মেঘলা দিনেও সূর্য থেকে ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি বের হয়ে থাকে, যা ত্বকের ক্ষতি করে। সানস্ক্রিন কয়েক ঘন্টা পর পর ব্যবহার করা উচিত। এটি ময়েশ্চারাইজারের মত ত্বকে দ্রুত মিশে যায়।


৫।  সমস্ত শরীরে ব্যবহার না করা

সারা শরীরে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত্‌ নয়। শরীরের যে যে অংশে সূর্যের আলো সরাসরি পড়ে, সেই সমস্ত জায়গায় ব্যবহার করতে হয় সানস্ক্রিন। শরীরের যে সমস্ত জায়গা ঢাকা থাকে সেখানে একেবারেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিৎ নয়।

৬। মেকআপের এসপিএফের উপর নির্ভর করা 

অনেকেই মনে করেন এসপিএফ যুক্ত মেকআপ ব্যবহার করলে সানস্ক্রিন ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। কিন্তু এটি একটি ভ্রান্ত ধারণা। কারণ এসপিএফ যুক্ত ফাউন্ডেশন বা ময়োশ্চারাইজারে পর্যাপ্ত পরিমাণে এসপিএফ ব্যবহার করা হয় না, যা আপনার ত্বককে রক্ষা করবে। তাই আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করে তার উপর ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। এটি আপনার ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করবে।


৭। শুধু মুখে ব্যবহার করা

বেশির ভাগ মানুষ সানস্ক্রিন শুধু মুখে লাগিয়ে থাকেন। কিন্তু সানস্ক্রিন হাত, পা, ঘাড়, পিঠ (খোলা স্থানে) লাগাতে হবে। শুধু তাই নয় কাপড়ে ঢাকা অংশেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত।

৮। সঠিক নিয়ম না মানা

রোদে বের হওয়ার কমপক্ষে আধ ঘন্টা আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। লোশন অথবা ক্রিম ত্বকে ভালভাবে কাজ করার জন্য ত্বকে মিশে যাওয়ার সময় দেওয়া উচিত।


৯। ঘরের বা অফিসের ভেতরে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা

অনেকেই মনে করেন সানস্ক্রিন গরমের হাত থেকে ত্বককে বাঁচায়। তাই তাঁরা ঘরের ভেতরেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন। আসলে এই ধারণাটা ভুল। সানস্ক্রিন সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির হাত থেকে আমাদের ত্বককে বাঁচায়। তাই যখন ঘরের ভেতরে বা অফিসের ভেতরে রয়েছেন তখন সানস্ক্রিন ব্যবহার করা ঠিক নয়। এতে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

১০।  রি-অ্যাপ্লাই না করা 

যদি অনেক্ষণ বাইরে থাকতে হয়‚ তাহলে অবশ্যই ৩০ মিনিট পর পর আবার নতুন করে শরীরের খোলা অংশে সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন। নইলে রোদের ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে পারবেন না.

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon