Link copied!
Sign in / Sign up
0
Shares

এমন কিছু জিনিস যা শুধু দেশি পর্নেই দেখা যায়


ভারতবর্ষে ব্লু ফিল্মস বা পর্ন ভিডিওর আলাদা আলাদা ঘরানা রয়েছে। দেশি পর্ন মানে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সফট পর্ন বা হাফ পর্ন। এদেশে ‘মাল্লু’ বা ‘দেশি’ নামে পরিচিত যে দক্ষিণ ভারতীয় ফিল্ম, তা কখনোই  বিদেশী পর্নের মতো অতটা রগরগে জিনিস নয়। এই ফিল্ম ঘরানার স্বাতন্ত্র্য রয়েছে। এই ফিল্মের দর্শকরা শিখে নিতে পারেন যে উদ্ভট কয়েকটি জিনিস তা এরকম—

১. দক্ষিণী সিনেমা দেখে আপনার হয়তো মনে হতেই পারে যে, ভারতে ‘সেক্স’ বা মিলন নামক বস্তুটি কেবল দক্ষিণ ভারতেই পালিত হয়। কারণ এইসব সিনেমায় উত্তর ভারতীয় অভিনেতা-অভিনেত্রী রীতিমতো বিরল।

২. পোশাক-আশাক না খুলেও সঙ্গম করা কোনও ব্যাপার নয়। কারণ দেশি ব্লু ফিল্মে নিম্নাঙ্গের পোশাক বেশির ভাগ সময়েই খোলা হয় না।

৩. একটু মেদবতী নন যেই মহিলা, তার কোনও যৌন আবেদনই নেই, এমনটাই ধোয়া হয়।

৪. মাঝবয়সি বৌদি-বৌদি ধরণের না হলে মহিলারা ‘সেক্সি’ বলে বিবেচিত হওয়ার যোগ্যই হন না।

৫. মানুষকে চরম যৌনতায় উত্তেজিত করার জন্য সেক্স ফ্যান্টাসিই যথেষ্ট। ভারতীয় ব্লু ফিল্মে প্রায়শই দেখা যায় লোকে কেবল কল্পনার মাধ্যমেই উত্তেজিত হয়ে উঠছে।

৬. শরীরী প্রেম করার জন্য বিছানার থেকেও মোক্ষম জায়গা হল বাথরুম। মিলিত হওয়ার জন্য নারী-পুরুষ কথায় কথায় বাথরুমে শাওয়ারের নীচে চলে যায়।

৭. সেই পুরুষই বিছানায় কাম্য, যার নাকের নীচে মোটাসোটা গোঁফ রয়েছে।

৮. ধর্ষণ ও স্বাভাবিক যৌনতার মধ্যে তফাৎ সামান্যই। কারণ নায়িকারা দু’ক্ষেত্রে প্রায় একই রকম ফেসিয়াল এক্সপ্রেশন দিয়ে থাকেন। এবং সেই এক্সপ্রেশনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হল ঠোঁট কামড়ানো।

৯. ঘোর নির্জন বাথরুমে শাওয়ারের নীচেও মেয়েরা সুইমিং কস্টিউম পরে স্নান করেন।

১০. সদ্য স্নান করা মেয়েরা বাথরুম থেকে বের হন সর্বদাই তোয়ালে পরে। অন্য পোশাকে দেখাই যায় না।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon