Link copied!
Sign in / Sign up
5
Shares

খাবার বার বার গরম করে খেলে বিপদ


এই সমস্যা প্রায় আমাদের প্রতিটি বাড়িতে হয়ে থাকে আমরা সাধারনত রান্না করার পরে সময় বাঁচানোর জন্য সেই খাবার আবার পরের দিনের জন্য রেখে দিই, এবং সেই খাবার পুনরায় গরম করেই খাই। কিন্তু আমরা সেই খাবার পুনরায় গরম করে খাওয়ার ফলে নিজেদের অনেক ক্ষতি করছি, এর ফলে আমাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি অনেক গুন বেড়ে যায়। ঠিক তেমন আমরা এমন কিছু খাবার আছে যা প্রতিদিন পুনরায় গরম করে খাচ্ছি। এরকম কিছু খাবারের সম্পর্কে জেনে রাখুন যেগুলো কোনো সময়ে পুনরায় গরম করে খাবেন না।

পোড়া বা খাবার তেল

আমরা অনেকেই খাবার রান্নার পর অবশিষ্ট তেল রেখে দিই পরবর্তী কোন খাবার রান্নার জন্য কিন্তু এটা আমাদের শরীরের জন্য কতটা ক্ষতিকর । পোড়া তেল ফের গরম করে রান্নায় ব্যবহার করলে ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

চা

চা বানানোর পর তা ঠান্ডা হয়ে গেলে পুনরায় গরম করা উচিত নয়। কারণ চায়ের মধ্যে ট্যানিক অ্যাসিড থাকে। তৈরি করা চা ফের গরম করে পান করলে লিভারের ক্ষতি হতে পারে।

পালং শাক

পালং শাকও রান্নার পর পুনরায় গরম করা উচিত নয়। পালং শাকে অতিরিক্ত পরিমাণে নাইট্রেটস থাকে। রান্না করা পালং শাক ফের গরম করে খেলে শরীরের ক্ষতিকারক টক্সিন বেশি মাত্রায় ঢুকতে পারে।

মুরগির মাংস

সময় বাঁচানোর জন্য আমরা অনেক মুরগির মাংস রান্না করে রাখি কিন্তু মুরগির মাংস বার বার গরম করে খাওয়া উচিত নয়। কারণ মুরগির মাংসে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। রান্নার পরে তা গরম করে খেলে বদহজম হতে পারে।

মাশরুম

সাধারনত মাশরুমের ফাইবার ও এনজাইম হজমে সহায়তা করে। এটি অন্ত্রে উপকারী ব্যাকটেরিয়ার কাজ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এবং এর পুষ্টি উপাদান শোষণকেও বাড়াতে সাহায্য করে। আর তাই মাশরুম একবার রান্নার পরে দ্বিতীয়বার গরম করে খেলে তা আমাদের পেটের জন্য অনেক ক্ষতিকর।

ভাত

ভাত রান্না করার সময় তাতে বেসিলস সিরিয়াস ব্যাক্টেরিয়া তৈরি হয়। রান্না করা ভাত ফের গরম করলে এই ব্যাক্টেরিয়া সংখ্যায় দ্বিগুণ হয়ে গিয়ে ডায়েরিয়া পর্যন্ত হতে পারে।

আলু

আলু রান্না বা সেদ্ধ করার পরে ঠাণ্ডা হওয়ার সময় তাতে বিশেষ ধরণের ব্যাক্টেরিয়া তৈরি হয়। গরম করলে এই ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যা বেড়ে গিয়ে পেটখারাপ পর্যন্ত হতে পারে।

ডিম

ডিমের মধ্যেও বেশি পরিমাণে প্রোটিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্টস থাকে। রান্নার পরে আবার তা গরম করলে ডিম থেকে টক্সিন তৈরি হবে যা থেকে বদহজম তৈরি হয়।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon