Link copied!
Sign in / Sign up
3
Shares

শিশুর দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে খেতে হবে এই খাবার

ছোট থেকে ইলকট্রনিক স্ক্রিনের দিকে ক্রমাগত দীর্ঘসময় ধরে তাকিয়ে থাকার কারণে দৃষ্টিশক্তি সংক্রান্ত সমস্যা যেন বেড়েই চলেছে। কম্পিউটার, টিভি এবং স্মার্টফোন এখনকার দৃষ্টিশক্তি সংক্রান্ত সমস্যার প্রধান কারণ। চশমার মাধ্যমে এর সমাধান করা গেলেও স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস এবং জীবন যাপনের মাধ্যমেও এর সমাধান করা যেতে পারে। এমন কিছু খাবার আছে যেগুলো খেলে আপনার সন্তানের দৃষ্টিশক্তির সব ধরনের সমস্যা সমাধান করবে।

১. সবুজ পাতাবহুল শাক সবজি

আমাদের জীবনের সবার সেরা বন্ধু হলো সবুজ পাতাবহুল শাক সবজি। এতে আছে লুটেইন এবং জিয়াক্স্যানথিন এর মতো অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা মাংসপেশির ক্ষয় রোধ করে। এরা চোখের মাংসপেশিকেও শক্তিশালী করে এবং রোগ সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

২. গাজর

সেই ছোটবেলা থেকেই আমরা শুনে আসছি গাজর আমাদের চোখের জন্য বেশ উপকারী। আসলেও তাই। গাজরে আছে প্রচুর পরিমাণে বিটা-ক্যারোটিন যা চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখা এবং চোখের কার্যক্রম সচল রাখায় সহায়ক ভুমিকা পালন করে। এছাড়া চোখের কোনো ধরনের ক্ষয়ও হতে দেয় না গাজর।

৩. পূর্ণ শস্য

পূর্ণ শস্যজাতীয় খাদ্যে গ্লিকেমিক ইনডেক্স কম থাকে। যা চোখের পেশির ক্ষয় এবং বার্ধক্যজনিত সমস্যা প্রতিরোধ করে। এই শস্য রক্তচাপ এবং ডায়াবেটিসও প্রতিরোধ করে যা দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে আসার প্রধান কারণ।

৪. সাইট্রাস ফল

লেবু এবং কমলার মতো সাইট্রাস ফল ভিটামিন C পূর্ণ। যা খুবই শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। এই ফল চোখের স্বাস্থ্য খুবই ভালো রাখে। এবং চোখের পেশির ক্ষয়রোধ করে। এছাড়া ভিটামিন C আমদের দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখে।

৫. বাদাম

বাদামে আছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড। যা চোখ সংক্রান্ত রোগ কমায়। এতে থাকা ভিটামিন ই চোখে ছানি পড়া এবং ক্ষয় প্রতিরোধ করে।

৬. মাছ এবং মাছের তেলের ক্যাপসুল

মাছেও আছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড যা চোখে রক্ত সরবরাহের শিরা উপশিরাগুলোকে শক্তিশালী করে। এছাড়া এটি স্মৃতি শক্তি বাড়ায়। যার ফলে দৃষ্টিশক্তিও উন্নত হয়।

৭. সূর্যমুখী ফুলের বীজ

এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন E এবং জিঙ্ক যা আমাদের চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে এবং রোগমুক্ত রাখতে সহায়ক। এসব বীজ থেকে পাওয়া তেলে আছে ক্যারোটিনয়েড যা ছানি পড়া রোধ করে।

৮. টমেটো

এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন A এবং C। প্রতিদিন টমেটো খেলে দৃষ্টিশক্তি উন্নত হয় এবং দৃষ্টিশক্তি হারায় না।

৯. মটর

কিডনি বিন, কালো চোখ মটরশুটি এবং ডালে আছে বায়োফ্ল্যাভোনয়েড এবং জিঙ্ক। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় এসব খাবার রাখলে রেটিনায় কোনো ক্ষয় এবং ছানি পড়া প্রতিরোধ করে।

১০. ডিম

বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে ডিমও বেশ কার্যকর। বিশেষ করে ডিমের কুসুমে আছে লিউটেইন, জিয়াক্সানথিন এবং জিঙ্ক যা রেটিনায় কোনো ধরনের ক্ষয় প্রতিরোধে বেশ কার্যকর।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon