Link copied!
Sign in / Sign up
10
Shares

ছোট হোক বা বড় খিদের রাজা ডালিয়া


সুস্বাদু না হলেও গুণে কিন্তু কেউ আটকাতেই পারবেন না ডালিয়াকে। তাই তো সুস্থ থাকতে ছোট থেকে বড়, সবারই খাওয়া উচিত কারণ যে যে সুপার ফুডের সন্ধান পাওয়া যায়, ডালিয়া তার মধ্যে অন্যতম। আসলে চটজলদি রান্না হয়ে যাওয়া জন্য এই খাবারটির শরীরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ডায়াটারি ফাইবার, যা কনস্টিপেশন সমস্যা দূর করার পাশাপাশি কোলেস্টেরল লেভেল কমাতে এবং ওজন হ্রাসেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। শুধু তাই নয়, প্রতিদিন এই খাবরটি খেলে আরও অনেক উপকারিতা পাওয়া যায়।

১. ওজন কম

অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় যাদের আছে, তাদের নিয়মিত ব্রেকফাস্টে ডালিয়া খাওয়া উচিত। এই খাবারটি অনেকক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখে, ফলে বার বার খাওয়ার প্রবণতা হ্রাস পায়। আর কম খাওয়ার কারণে ওজন কমার পথ হয় প্রশস্ত।

২. ডায়াবেটিস

ডালিয়া খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায় না। বরং ধীরে ধীরে রক্তে বাড়তে থাকে চিনির পরিমাণ। ফলে হঠাৎ করে সুগার লেভেল বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা এই খাবার খেলে থাকে না বললেই চলে। তাই তো এই খাবারটি খেলে ডায়াবেটিস রোগীদের কোনও ক্ষতি তো হয়ই না, উল্টে ডায়াবেটিস রোগ একেবারে নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

৩. পেটের রোগ নিমূল হয়

ডালিয়া শরীরে প্রবেশ করার পর হজমে সহায়ক পাচক রসের ক্ষরণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে একদিকে যেমন বদ-হজমের সমস্যা দূর হয়, তেমনি কনস্টিপেশনের মতো রোগও একেবারে নিমূল হয়ে যায়। তাই পেটের রোগের কারণে যাদের জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে, তারা এবার থেকে ব্রেকফাস্টে বা লাঞ্চে ডালিয়া খাওয়া শুরু করতে পারেন। দেখবেন উপকার পাবেন।

৪. পেশির গঠন

নিয়মিত জিমে গিয়ে ওজন তোলার পাশাপাশি ডালিয়া খাওয়ারও অভ্যাস করতে পারেন, এমনটা করলে কি হবে জানেন? ডালিয়ায় উপস্থিত প্রোটিন পেশির গঠনে সাহায্য করবে। ফলে দ্রুত শরীর শেপে আসতে শুরু করবে।

৫. দেহে পুষ্টির ঘাটতি

শরীরকে সচল রাখতে প্রতিদিন যে যে পুষ্টিকর উপাদানের প্রয়োজন পরে, তার অনেকগুলিই ডালিয়া থেকে পাওয়া যায়। তাই আপনি যদি হোস্টেল বা মেসে থেকে থাকেন, তাহলে কম পয়সায় পুষ্টির ঘাটতি মেটাতে ডালিয়া খাওয়া শুরু করতে পারেন। 

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon