Link copied!
Sign in / Sign up
0
Shares

শিশুর বেশি বয়স পর্যন্ত আঙ্গুল চোষার অভ্যেস

শিশু তার হাতের বুড়ো আঙ্গুল মুখে দিয়ে চুষছে বা কামড়াচ্ছে, এটি আমাদের অত্যন্ত পরিচিত একটি দৃশ্য। বেশিরভাগ শিশুর মধ্যেই এই প্রবণতাটি লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু বারণ করার পরও অনেক শিশু এই ধরণের অভ্যেস ছাড়তে পারে না। কিন্তু বেশ বড় হয়ে গেলেও সেই অভ্যাস ছাড়াতে পারছেন না।

একটু বড় হতেই তার সঙ্গে দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাস? ভাবছেন এতে শরীরে বাসা বাঁধছে রোগ, ইনফেকশন, অ্যালার্জির জীবাণু? চিন্তার কিছু নেই। কারণ, আঙুল চোষার অভ্যাস থাকলে নাকি বেড়ে যায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

ছোট থেকেই প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ তৈরি হওয়া প্রয়োজন শিশুদের। কিন্তু বেশ কিছুটা সময় পর্যন্ত প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ না থাকায় হঠাৎ বাইরে বের হলে অ্যালার্জি আর ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। ১৩ বছর বয়সী একদল কিশোরের ওপর সমীক্ষা চালান গবেষকরা। দেখা গেছে, এদের মধ্যে ৪৫% শিশু বিড়াল, কুকুর, ধুলো বা ফাংগাস অ্যালার্জির প্রতি সংবেদনশীল।

তবে এই শিশুদের মধ্যে যাদের আঙুল চোষার অভ্যাস রয়েছে তাদের অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা ৩১% পর্যন্ত কম। যত অল্প বয়স থেকে ধুলো ময়লা, বাইরের জগতের সঙ্গে সংযোগ হবে, শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তত বাড়বে। মুখে আঙুল দেয়ার ফলে জীবাণু সরাসরি তাদের শরীরে প্রবেশ করছে যা বাড়িয়ে দিচ্ছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon