Link copied!
Sign in / Sign up
9
Shares

গরম আসছে; বাচ্চার শরীর ঠান্ডা রাখতে হবে তো! কিভাবে?

 

গরম থাকুক কি না থাকুক ঘর ঠান্ডা রাখার পাশাপাশি শিশুর শরীরও ঠান্ডা রাখতে হবে। কোল্ড ড্রিংক নয় শরীর ঠান্ডা রাখে বেশ কিছু স্বাস্থ্যকর খাবার আছে যা শিশুকে খাওয়ানো প্রয়োজন। জেনে নিন কোনগুলি।

বাচ্চার খাওয়া-দাওয়ার দিকে বিশেষ নজর দিতে হয় কারণ যা-তা খাবার খেলে শরীর গরম হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। নিচে রইল ৮টি খাবার যা শরীর ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে।

১. শশা

প্রথম এবং প্রধান হল শশা। বাড়িতে থাকলে তো বটেই, বাইরে বেরলেও টিফিনবক্সে ভরে নিন শশা স্লাইস, তবে কোনওমতেই রাস্তার কাটা শশা শিশুকে খাওয়াবেন না।

২. তরমুজ

তরমুজ গরমের ফল এবং বাচ্চার শরীর ঠান্ডা তো রাখেই, পাশাপাশি শরীরে আর্দ্রতাও বাড়ায় যাতে গরমে শরীর শুকিয়ে না যায়। সপ্তাহে দু’তিনদিন অবশ্যই তরমুজ খাওয়াবেন।

৩. পিচ

বিদেশি ফল পিচ-এও ঠান্ডা থাকে শিশুর শরীর। এখন মলগুলিতে সারা বছরই পিচ পাওয়া যায়।

৪. আপেল

গরমকালে অনেকেই আম-কাঁঠালের দিকে বেশি ঝোঁকেন কিন্তু অনেকেই জানেন না আপেল কিন্তু বাচ্চার শরীর ঠান্ডা রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়।

৫. আনারস

আনারস গরমকালের অতি পরিচিত ফল। সপ্তাহে একদিন আনারস খাওয়ান বাচ্চাকে তবে গর্ভবতী মহিলারা এই ফলটি খাবেন না কারণ গর্ভপাতের আশঙ্কা থাকে।

৬. সবুজ সবজি

যে কোনও সবুজ সবজি শিশুদের শরীর ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে। তার মধ্যে অন্যতম হল ব্রকোলি। এগুলি এখন সাধারণ পাড়ার বাজারেও পাওয়া যায়।

৭. লেবু

লেবু যে বাচ্চার শরীর ঠান্ডা রাখে তা আর নতুন করে বলার কিছু নেই, সবাই জানেন। বাচ্চা একটু বড় হলে প্রতিদিন সকালে এক কাপ জলে একটি পাতিলেবুর রস দিয়ে মিশিয়ে খাওয়ান। সন্ধেবেলা স্কুল থেকে বাড়ি ফিরলে ফ্রেশ হলে আর একবার খাওয়ান।

৮. লাউ এবং চালকুমড়ো

লাউ এবং চালকুমড়ো গরমকালে প্রায় প্রতিদিনই খাওয়ানো উচিত বাচ্চাকে কারণ শরীর ঠান্ডা রাখতে বিশেষ ভূমিকা নেয় এগুলি।  

Click here for the best in baby advice
What do you think?
100%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon