Link copied!
Sign in / Sign up
45
Shares

কোন ৮ টি চরিত্র থাকলে আপনার স্বামীকে বেস্ট বলতে পারেন?

 


১. আপনার হৃদয় জয় করার প্রাথমিক উপায়:

একটু আবেগপ্রবণ ভালবাসা আপনার জীবনের যে কোনো পর্যায়কে পরিবর্তন করতে সাহায্য করে এবং এটা অর্জন করার জন্য একে অপরের ওপর নির্ভর করতে হয়। আপনার জন্য একটু তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরে আসা,সকলে একসাথে মিলে প্রাতঃরাশ বা রাতে একটু মোমবাতির আলোয় নৈশ ভোজন, দুজনে একসাথে সময় কাটানো এইগুলোই জীবনের রং গুলো কে বদলে দিতে সাহায্য করে। এই সব ছোট খাটো দৈনন্দিন চাহিদা গুলো আপনার বিস্বাস কে আরও দৃঢ় করে আর এর ওপর নির্ভর করেই বিস্বাস আরো সুদৃঢ় হয়। এইসব কিছুই আপনার ন্যায়পরায়ণতা প্রমান করে এবং আপনি আপনার জীবনে সেরা স্বামীকে খুঁজে পান!

২.আপনার প্রতি বিশ্বাস ও মর্যাদা:

বিবাহিত জীবনে বিস্বাস একটি অন্যতম স্থান প্রদান করে। তিনি আপনাকে তার সমস্যার সঙ্গে বিশ্বাস এবং আপনার পরামর্শ এবং উপদেশ নিয়ে থাকে তবে আপনি একটি শক্তিশালী সম্পর্ক গড়ে তুলতে সক্ষম হন এবং এটাও প্রমান হয় যে তিনি  আপনার পরামর্শকে মূল্য দেয়। এর ফলে একে অপরের সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম হয় এবং পাশাপাশি নিজেদের সম্পর্কের একটি ভাল ভিত্তি গড়ে ওঠে।

৩. আপনার প্রশংসা করা:  

আপনার স্বামী যদি তার বন্ধু দের কাছে আপনাকে নিয়ে প্রশংসা করে এবং আপনার গুনাবলী আলোচনা করে তবে আপনিও আপনার স্বামীর প্রশংসা তার বন্ধুদের কাছে করুন। কারণ একটু অতিরিক্ত প্রসংসার সবসময় প্রশংসা করা হয়। সেরা অনুভুতি সেটাই যখন আপনার স্বামী জানে যে আপনি তার কথা না শোনার ভান করছে এবং তিনি বলছেন যে আপনি তাকে মাথায় করে রাখেন,তিনি খুব ভগবান আপনাকে স্ত্রী হিসেবে কাছে পেয়ে।

৪.একে অপরের সাথে হাত মিলিয়ে থাকা:

হাত ধরার একটি সহজ কাজ, আপনার স্বামী এটি প্রায় করবে, আপনাকে কোনো কথার মাধ্যম ছাড়াই বুঝিয়ে দিতে চাইবে যে তিনি সবসময় আছে আপনার সাথে সবজায়গাতে। আপনিও তার সাথে নিরাপদ বোধ করবেন।

৫.পরিণত স্বামী হবার উপায়:

এক জন পরিণত স্বামী তখনি হওয়া যায়, যখন সে তোমার অনুভূতি গুলো কে বুঝবে এবং তোমার মনের কথা গুলো বোঝার চেষ্টা করবে। সব মিলিয়ে তোমার যে কোনো পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে পারবে।

৬.দৈনন্দিন কাজে সহযোগিতা:

 

আপনার প্রিয় মানুষটির ভালোবাসা বাড়ানোর জন্য যে কোনো দিন তাকে নূতন কোনো চমক দিতে পারেন যে কোনো কাজের মাধ্যমেআপনার সাথে বাসন ধোয়া,ঘরের যে কোনো কাজ করা,অথবা শৌচালয় পরিস্কার করে


৭.আপনার খুশি তে স্বামীর সুখ:

আপনার করা রান্না সেরা নাও হতে পারে অথবা আপনার কৌতূহল গুলো তার অপ্রয়োজনীয় হতেও,পারে তবুও তিনি সেই সব কিছু নিয়ে আনন্দ অনুভব করেনতিনি আপনার রান্নার প্রশংসা করবে যেন সেটাই সব থেকে সেরা ছিলতিনি সবথেকে বেশি চেষ্টা করবেন আপনাকে সুখী এবং হাসি খুশি রাখতে,কারণ আপনার স্বামীর কাছে সব থেকে আনন্দের বিষয় হলো দিনের শেষে আপনার হাসি মুখ

৮.সুন্দর এবং সুখী জীবনের সূচনা:

আপনার স্বামী সব কাজে নিখুঁত নাও হতে পারে কিন্তু আপনাকে মনে রাখতে হবে যে আপনি যদি আপনার স্বামী কে হাসিখুশি এবং আনন্দ দেবার প্রচেষ্টা করেন তবে স্বতঃস্ফূর্তভাবে আপনি একজন ভাল মানুষ হতে পারবেনআপনি যদি চিন্তাধারার পরিবর্তন করে  হাসি মুখে সব মেনে নিতেন পারেন তবেই সুন্দর এবং সুখী জীবনের সূচনা হবে

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon