Link copied!
Sign in / Sign up
4
Shares

৭টি জিনিস যা আপনার স্বামীর সেক্স ড্রাইভকে নষ্ট করে দেয়

সেক্স হল যে কোন স্বাভাবিক বৈবাহিক সম্পর্কের এক অখন্ড অংশ আর আপনার স্বামী যদি তাঁর ঘনিষ্ঠতার ইচ্ছা হারিয়ে ফেলে থাকেন, তার জন্য এই যৌনতা নষ্টকারী বস্তুগুলির মধ্যে কোন একটি দায়ী হতে পারে। নীচে দেখুন।

১। চাপ

ব্যক্তিগত হোক বা কর্মজীবন জড়িত, চাপ যৌনাকাঙ্খার উপর খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে, পুরুষ নারী সবার মধ্যেই। কোন প্রয়োজনীয় বিষয়ে চিন্তা করতে থাকলে যৌনাকাঙ্খা জাগা অসম্ভব। বিরক্ত না হয়ে তাঁকে সান্ত্বনা দিন ও সমস্যার সমাধান করতে সাহায্য করুন। অনুভূতির ভারসাম্যহীনতার প্রভাব ও একই রকম হতে পারে, তাই ঠিকমতো ভাব প্রকাশ করতে পারে জরুরী।

২। মদ ও ক্যাফেইন

এদুটি অত্যাধিক পরিমাণে খেলে তার থেকে সেক্স ড্রাইভ কমে যেতে পারে, আর মদ এর উপরে ইরেক্টাইল ও অর্গাসমিক ক্রিয়ার ওপর ও প্রভাব ফেলে। ক্যাফেইন থেকে উত্তেজনা বা দুঃশ্চিন্তার সৃষ্টি হতে পারে, যা যৌনসঙ্গমের জন্য ইচ্ছা কমিয়ে দেয়। কিন্তু উত্তেজক বস্তু হওয়ার ফলে ক্যাফেইন সেক্সের সময় শক্তিবর্ধক হিসেবে কাজ করে, যদি তা সুপারিশ করা পরিমাণে নেওয়া হয়, কফি ও এনার্জি ড্রিংকসের মাধ্যমে।

৩। ঘুমের অভাব

দীর্ঘদিন ধরে ঘুমের অভাব পুরুষদের মধ্যে যৌনাঙ্গের অক্ষমতার সৃষ্টি করতে পারে। প্রয়োজনের চেয়ে কম ঘুম (প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৬-৭ ঘন্টা) থেকে অবশেষে টেস্টোস্টেরন কমে যায়, যা পুরুষদের যৌনাকাঙ্খার এক অত্যন্ত প্রয়োজনীয় অংশ। এছাড়া কম ঘুমকে অনেকসময় বিষণ্নতার উপসঙ্গ ধরা হয়, আর এন্টিডিপ্রেসেন্ট ওষুধের পার্শ্বপ্রভাব এই অবস্থাকে আরো গম্ভীর করে তোলে।

৪। ব্যায়াম

এটা আশ্চর্যজনক মনে হতে পারে কারণ সবাই জানে যে ব্যায়ামের অভাব যৌনিচ্ছা কমিয়ে দেয়, কিন্তু, সাধারণ ধারণার বিপরীতে, অত্যাধিক ব্যায়ামের ফলেও একই জিনিস হয়। অধিক ব্যায়ামের সঙ্গে যুক্ত সমস্যা হল অধিক ভক্ষণ, যা পুরুষদের মধ্যে যৌনাকাঙ্খা কমিয়ে আনে শরীরকে এক ক্যাটাবলিক অবস্থায় নিয়ে গিয়ে। কিন্তু সীমিত পরিমাণে ব্যায়ামের অভ্যাস রাখতে উৎসাহ দিন। হালকা কার্ডিও বা শক্তিবর্ধক ব্যায়াম তাঁকে সক্ষম ও আকর্ষক থাকতে সাহায্য করবে।

৫। নিজের শরীরগঠন দ্বারা লজ্জিত হওয়া

গর্ভবর্তী অবস্থায় বা জন্ম দেওয়ার পর মহিলারা অনেক সময় নিজের দৈহিক গঠন সম্বন্ধে অত্যধিক সচেতন হয়ে যান এবং নিজেদের শরীরের বিষয়ে লজ্জিত বোধ করেন। এটি স্বামীর যৌনিচ্ছা কমিয়ে দিতে পারে। তিনি বুঝছেন আপনি কি অবস্থায় আছেন, কিন্তু সবসময় তাঁকে অগ্রাহ্য করে নিজেকে ও ওনাকে সেক্সের আনন্দ থেকে বঞ্চিত করবেন না শুধু মাত্র এই কারণে যে আপনার মনে হচ্ছে আপনি আর আকষর্ণীয় নন।

৬। পর্নোগ্রাফি

অত্যধিক পর্নোগ্রাফি দেখলে ও হস্তমৈথুন করলে তা মস্তিষ্কে ডোপামিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। এটি হল সেই নিউরোট্রান্সমিটার যা যৌন পরিতোষের ভাবকে জাগায়। এটা যদি বারবার হতে থাকে, তাহলে মস্তিষ্কের পক্ষে প্রতিক্রিয়া দেওয়া কষ্টকর হয়ে পড়ে। এই অবস্থা বদলানোর জন্য স্বাস্থ্যকর হস্তমৈথুনের স্বভাব মেনে চলা উচিত - যেমন নিজের কল্পনাকে ব্যবহার করা বা যৌনসঙ্গমে অংশ নেওয়া। এটা শুনতে সহজ লাগতে পারে, তবে পুরুষদের জন্য এই স্বভাব নিয়ন্ত্রণ করা অনেক সময় মুশকিল হয়ে পড়ে, তাই প্রয়োজনে পেশাদারী সাহায্য নেওয়া দরকার।

৭। অন্য পুরুষদের বিষয়ে কথা বলা

কোনো পুরুষ চাইবে না ডিনারের সময় ওপর পুরুষের গুনগান শুনতে, আপনিও চাইবেন না যে তিনি সবসময় অন্য মহিলাদের বিষয়ে কথা বলুন, তাই না? চারিদিকের জগতের নানা সমস্যার মধ্যে তিনি চান সন্ধ্যেটা আপনার সঙ্গে কাটাতে, তাই চেষ্টা করুন অন্য পুরুষদের বিষয়ে কথোপকথন না করতে।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon