Link copied!
Sign in / Sign up
24
Shares

পাঁচটি বিস্ময়কর বৈশিষ্ট্য যা আপনার সন্তান তার বাবার কাছ থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে লাভ করে


বাচ্চা আমাদের মনে এক অদ্ভূত বিস্ময়ের সৃষ্টি করে এবং আপনি হয়তো মুগ্ধ হয়ে ভাবেন ,কি করে এমন এক অপূর্ব মানব শিশু আপনি সৃষ্টি করলেন ! শিশু জন্মানোর ঠিক পরেই, আপনি নিশ্চয়ই লোকজনকে বলতে শুনেছেন বাচ্চাটিকে তার ময়ের মতো দেখতে অথবা “ওমা বাচ্চাটার নাকটা একদম বাবার মতো হয়েছে ! ” এর উত্তর বিজ্ঞানের কাছে আছে - মায়ের কাছ থেকে প্রাপ্ত জিনের থেকে বাবার কাছ থেকে প্রাপ্ত জিন অনেক বেশী ডমিনেন্ট বা প্রবল হয়। বাস্তব ক্ষেত্রে এই বৈশিষ্ট্যগুলি সময়ের সাথে সাথে পরিমার্জিত হয় এবং শিশু পূর্ণবয়স্ক হতে হতে এই গুণগুলি সুস্পষ্ট ভাবে দৃশ্যমান হয়ে ওঠে। এখানে কয়েকটি বিস্ময়কর বৈশিষ্ট্য দেওয়া হলো যা আপনার শিশু তার বাবার থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে লাভ করবে :


১. ঠোঁটের আকৃতি

যদি বাবার ঠোঁট মায়ের চেয়ে চওড়া এবং ভরাট হয়, সম্ভাবনা থাকে - বাচ্চার ঠোঁট তার বাবার মতো হবে। এর পেছনে কারণ হচ্ছে ঠোঁটের আকারে পূর্ণতা ডমিনেন্ট বা প্রবল বৈশিষ্ট্য যা বাবার থেকে বাচ্চাদের মধ্যে বাহিত হয়।

২. গালের টোল

প্রতিটি মেয়ের বাসনা থাকে তার গালে টোল পড়ুক,এবং তার হাসির এই বিশেষত্বে সবাই মুগ্ধ হোক। দুর্ভাগ্যবশতঃ ,সবাই এই সৌভাগ্যের অধিকারী হয় না! কিন্তু আপনার শিশু হয়তো এর ব্যতিক্রম। টোল গালের একদিকে বা দুদিকে পড়তে পারে, এটি নির্ভর করে মুখের গঠন, হাড় এবং পেশীর সংযোগের ওপর।ফলে, যদি শিশুর বাবার গালে টোল পড়ে শিশু এই সৌভাগ্যের অধিকারী হবে !


৩. আমার বাচ্চা ওর বাবার মতো করে খায়

বিশেষ করে ছেলেরা তাদের বাবার ক্রিয়াকলাপের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয় এবং ভবিষ্যতে সেটি অনুসরণ করে চলে। খাদ্য গ্রহণের অভ্যাস একটি খুবই প্রচলিত অনুকরণ! সমসাময়িক কালের গবেষণায় দেখা গেছে বাবারা যে খাদ্যদ্রব্যগুলি গ্রহণে উৎসাহী হয় সন্তানরাও সেই সব খাদ্য দ্রব্যে বেশী আকৃষ্ট হয়। ফলে তার বাবা যদি চাইনিজ খেতে ভালোবাসে বাচ্চারও তাহলে চিনা খাবারে আসক্তি থাকবে ।

বাবারা যদি প্রচুর পরিমাণ আজেবাজে অস্বাস্থ্যকর খাদ্য খেতে অভ্যস্ত হন, এটি তাঁদের জন্য একটি সাবধান বাণী হতে পারে। সব বাবাই চান তাঁদের সন্তান সুস্থ এবং স্বাস্থ্যবান হোক । ফলে তিনি হয়তো সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে অস্বাস্থ্যকর খাবার ত্যাগ করে স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করা শুরু করবেন ।


৪. খেলোয়াড়ী এবং খেলাধুলা প্রিয়

বাবাকে সবসময়ই বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার সাথে অঙ্গাঙ্গিভাবে যুক্ত করে দেখা হয়ে থাকে । এটা ঘটনা যে বাবাই সেই মানুষ যিনি বাচ্চাকে বাইসাইকেল চালাতে শেখান।

যখন বাড়ির বাইরে গিয়ে কোন খেলার প্রশ্ন ওঠে , বাচ্চারা সবসময় বাবার সঙ্গ কামনা করে। সন্তানের শারীরিক দক্ষতার জন্য বাবাকে দায়ী করা হয়, কারণ পরিবারের মধ্যে বাবাকে সবচেয়ে খেলোয়াড়ী দক্ষতা সম্পন্ন বলে ধরে নেওয়া হয়। তাঁরাই বাচ্চার মধ্যে খেলোয়াড়ী মনোভাব এবং সুস্থ প্রতিযোগীতার মানসিকতা গড়ে তুলতে পারেন ।


৫. অন্যদের জন্য শ্রদ্ধা

বাচ্চা ছেলেরা খুব ছোটবেলাতে থেকেই অনুকরণ করতে শেখে। বাবা যা করেন তারাও তাই করার চেষ্টা করে, কারণ সেও ভবিষ্যতে বাবার মতো হতে চায়। এটি বাবাকে একজন ভালো মানুষ হতে অনুপ্রেরণা জোগায়, যাতে বাবা তাঁর ছেলের সামনে আদর্শ মানুষ হয়ে উঠতে পারেন!!

সবসময় মনে রাখবেন সন্তানরা বাবা মায়ের আয়না।তাই আপনি যা করবেন, ভেবেচিন্তে করবেন। আপনার সুপ্রভাব আপনার সন্তানের ওপর পড়তে দিন, যাতে তারা সফল ব্যক্তিমানুষ হিসাবে গড়ে ওঠে। এটা দেখতে মজা লাগে কেমন করে ছোট্ট বাচ্চারা শুধুমাত্র তাদের বাবার মতো হওয়ার জন্য তাঁর নকল করে। আমরা আশা করি আপনাদের দুজনের মতো আপনাদের সন্তানও সুন্দর মনের সফল মানুষ হবে।

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon