Link copied!
Sign in / Sign up
0
Shares

১০টি জিনিস যা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ছেড়ে দেওয়া উচিত


মেয়েরা হাজার হাজার টাকা সৌন্দর্যের পণ্যের ওপর খরচা করে কিন্তু এইগুলি ত্বকের ক্ষতিও করতে পারে।

১. কড়া এক্সফলিয়ান্ট 

ত্বকের মরা জায়গা উঠিয়ে বকের ঔজ্জল্য ফিরিয়ে দেয়.কিন্তু মাঝে মাঝে এটা দেওয়ার পর ত্বক শুকনো হয়ে যায় ও জ্বালা করে.ইটা তখন হয় যখন নাটশেল ও মাইক্রবিদ দেওয়া থাকে.তার থেকে ভালো জজবা দেওয়া পণ্য মাখা.

২. সুবাস দেওয়া পণ্য

পারফিউম থাকলেই ত্বকে বিরক্তি জাগতে পারে.সুবাস ছাড়া অর্গানিক জিনিস পেলে তুলে নেবেন. কক বাটার লোশন গুলি ভালো কেননা সেটাকে আলাদা করে সুবাস দিতে হয় না.

৩. চুল তোলার ক্রিম

ব্যবহার করা খুব সহজ কিন্তু এতে প্রচুর কেমিকাল থাকে.ত্বকের ছিদ্ফো খোলা ও বন্ধ করাতেই ক্ষতিটি হতে পারে.

৪. মিনারেল তেল

মেক আপ থেকে লোশন পর্যন্ত সব কিছুতে থাকে এটি.কিন্তু এগুলি ত্বকের ছিদ্র বন্ধ করে দেয় এবং এতে ব্ল্যাক হেড হয়.গ্লিসারিন দিয়ে তৈরী জিনিস কেন ভালো, পারাফিন ও পেট্রোলিয়াম তেল দেওয়া জিনিস কিনবেন না.

৫. সাবান

সাবান ও ময়স্চারায়জার ব্যবহার না করে ক্লেন্সার ব্যবহার করুন.ত্বক কে পুষ্টিও দেয়.এগুলি ত্বকের তেল টেনে নেই না আর ত্বককে আরও উজ্জ্বল করে.

৬. এলকোহল দেওয়া জিনিস

এইগুলি দিলে সুন্দর লাগে বটে কিন্তু ত্বক শুকনো হয়ে যায়.জল বা গ্লিসারিন দেওয়া পণ্য কিনবেন যাতে জ্বালা বা বিরক্তি না হয়.

৭. পার্মানেন্ট চুলের রং

চুলের নতুন রং আপানর চেহারা আগা পাচতলা বদলে দিতে পারে.কিন্তু বেশিদিন রং দিলে ব্লাডার ক্যান্সার হতে পারে. অর্গানিক পণ্য ব্যবহার করা ভালো.

৮. নেল পালিশ

নেল পালিশ থেকে যা টক্সিন বেরয় তাতে মস্তিষ্কের গতি কমে যায়. তাই ভালো ব্র্যান্ডের জিনিস কিনবেন.

৯. এন্টি পার্স্পিরান্ট

বেশি এলুমিনিয়াম থাকে.এতে ক্যান্সার হতে পারে. তাই এমনি দেওদরেন্ট ব্যবহার করাই ভালো.

১০. সানস্ক্রীন

এতে ভিটামিন এ থাকে যা রৌদ্রে ক্যান্সারের কারণ হয়ে উঠতে পারে. কিন্তু নাইট ক্রিমে অসুবিধা নেই কেননা ভিটামিন এ শুধু রোদেই হানিকারক.

Click here for the best in baby advice
What do you think?
0%
Wow!
0%
Like
0%
Not bad
0%
What?
scroll up icon